১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুক্তিযোদ্ধাদের নিবন্ধন কার্যক্রমের সময় বৃদ্ধি প্রসঙ্গে

মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাঁদের অসীম ত্যাগের ফলেই আজ আমরা স্বাধীন জাতি হিসেবে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছি। তাঁদের অবদান জাতি কোনদিনই ভুলবে না। প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রণয়নের লক্ষ্যে অনলাইনে আবেদনের কার্যক্রমটি সরকারের একটি প্রসংশনীয় উদ্যোগ বলে বিবেচিত। স্বাধীনতা যুদ্ধে সম্ভ্রম হারানো মা-বোনেরাও মুক্তিযোদ্ধার মর্যাদা পাওয়ায় আমরা গর্বিত। আমরা চাই একজনও প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা যেন নিবন্ধন কার্যক্রমে বাদ না পরে। গত ৩১ অক্টোবর মুক্তিযোদ্ধাদের নিবন্ধন কার্যক্রমের মেয়াদ শেষ হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধা হওযার নতুন নীতিমালা অনুযায়ী দেশের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা অনেকেই মুক্তিযোদ্ধার প্রকৃত দাবিদার যারা এখনও অজ্ঞতাবশত নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নিবন্ধিত হতে পারেননি। তাই আমরা সরকারের কাছে আবেদন করছি নিবন্ধনের মেয়াদ ব্যাপক প্রচারণার মাধ্যমে আমাদের মহান বিজয় দিবস ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্ধিত করা হোক।

মোঃ মিজানুর রহমান

গোবিন্দগঞ্জ, গাইবান্ধা।