১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজশাহীতে বেপরোয়া গাড়ির ধাক্কায় কলেজবাস উল্টে তিন ছাত্রী নিহত

  • মা মেয়েসহ অন্যত্র হত চার

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ রাজশাহী সরকারী কলেজের শিক্ষার্থীদের বহনকারী একটি বাস বেপরোয়া অপর একটি বাসের ধাক্কায় উল্টে গিয়ে তিন ছাত্রী নিহত এবং অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। রবিবার দুপুরে কাঁটাখালী এলাকায় রাজশাহী জুট মিলের সামনে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। দেশের অন্যত্র সড়ক দুর্ঘটনায় মা মেয়েসহ চারজন নিহত এবং ১৪ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে গোপালগঞ্জে ট্রাকচাপায় স্কুলছাত্রী এবং ফরিদপুরের ভাঙ্গায় মিনিট্রাক ও ইঞ্জিনচালিত ভ্যানের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়। সিলেটে মা মেয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়। এছাড়া টেকনাফে সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন আহত হয়। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতা ও সংবাদদাতাদের।

বেলা পৌনে একটার দিকে রাজশাহী কলেজের ছাত্রীবাহী বাস লাকি পরিবহন ছাত্রীদের নিয়ে পুঠিয়ার বানেশ্বর যাচ্ছিল। এ সময় কাঁটাখালি জুট মিলের প্রধান ফটকের সামনে সিরাজগঞ্জ থেকে রাজশাহী অভিমুখী ইসলাম পরিবহনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ছাত্রীদের বাসটি রাজশাহী-ঢাকা সড়কের পাশের অন্তত ২০ ফুট খাদে পড়ে উল্টে যায়। খবর পেয়ে রাজশাহী সদর ও বিশ্ববিদ্যালয় দমকল বাহিনী, পুলিশ ও স্থানীয়রা বাসটির নিচ থেকে ১৭ জনকে উদ্ধার করে। তাদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত তিন শিক্ষার্থী হলেনÑমাহমুদা হক তানিয়া, শারমিন আক্তার ও বিউটি খাতুন। মাহমুদা হক তানিয়া রাজশাহী কলেজের সমাজকর্ম প্রথম বর্ষ, শারমিন আক্তার ব্যবস্থাপনায় মাস্টার্স ও বিউটি খাতুন ইতিহাস দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। তানিয়ার বাড়ি মতিহারের কাপাসিয়ায়, বাবার নাম ফজলুর হক। শারমিন আক্তারের বাড়ি পুঠিয়ার বড় ধাধাস গ্রামে, বাবার নাম হযরত আলী এবং বিউটি দুর্গাপুরের নৈপাড়া গ্রামের শাহজাহান আলীর মেয়ে।

আহত অন্যদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত রাজশাহী কলেজের ছাত্রীরা হলেনÑ ইসলামিক স্টাডিজের (চতুর্থ বর্ষ) মুন্নি, অর্থনীতির (প্রথম বর্ষ) সুমি, সমাজবিজ্ঞানের (দ্বিতীয় বর্ষ) আফিয়া, সমাজবিজ্ঞানের (চতুর্থ বর্ষ) খালেদা, আইরিন, ইসলামিক ইতিহাসের (মাস্টার্স) শাহিনা ও মলি, সমাজকর্মের (দ্বিতীয় বর্ষ) আদরী, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের (চতুর্থ বর্ষ) ফজিলা, বোটানির লাবনি, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের (দ্বিতীয় বর্ষ) সেতু ও অর্থনীতির (দ্বিতীয় বর্ষ) তুফানি।

বিশ্ববিদ্যালয় দমকল বাহিনীর টিম লিডার (হাবিলদার) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট উদ্ধার কাজ শুরু করে। আহতদের মধ্যে ১৭ জনকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এরা রাজশাহী কলেজের বিভিন্ন বর্ষের ছাত্রী।

রামেক হাসপাতালে শিক্ষক, সহপাঠী ও রাজনৈতিক নেতাদের ভিড় ॥ দুর্ঘটনায় আহতদের দেখতে রামেক হাসপাতালে ছুটে যান কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হাবিবুর রহমান, শিক্ষকম-লী, রাজশাহী সিটি কর্র্পোরেশনের মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, ওমর ফারুক চৌধুরী এমপি, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন আয়েন, রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন। তারা আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন এবং ব্যয়ভার বহন করার ঘোষণা দেন। সহপাঠীদের মৃত্যুর খবর পেয়ে রামেক হাসপাতালে কলেজের শিক্ষার্থীরা ভিড় জমান।

গ্রামের বাড়িতে শোকের ছায়া ॥ বিকেলে রাজশাহী কলেজ থেকে তিন জনের লাশ তাদের গ্রামে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে কান্নার রোল পড়ে। মতিহারের কাপাসিয়া, পুঠিয়ার ধাধাস ও দুর্গাপুরের নৈপাড়া গ্রামে হাজারো মানুষ ভিড় জমায়। সন্ধ্যায় তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

তদন্ত কমিটি গঠন ॥ রাজশাহীতে ছাত্রী বহনকারী বাস উল্টে তিন ছাত্রী নিহত হওয়ার ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। কলেজের গণিত বিভাগের প্রফেসর মোশাররফ হোসেনকে আহ্বায়ক করে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেনÑ বাংলা বিভাগের প্রফেসর আল ফারুক ও ওলিউর রহমান, ইতিহাস বিভাগের ড. কামাল হোসেন, ব্যবস্থাপনা বিভাগের আব্দুর রাজ্জাক।

ভাঙ্গায় নিহত ১ ॥ ফরিদপুরের ভাঙ্গায় শনিবার বিকেলে ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা চৌরাস্তা সংলগ্নস্থানে একটি মিনিট্রাক ইঞ্জিনচালিত ভ্যানকে ধাক্কা দিলে ভ্যানের তিন যাত্রীই গুরুতর আহত হয়। মুমূর্ষু অবস্থায় তাদের ভাঙ্গা উপজেলা হাসপাতালে নেয়া হলে তাদের ফরিদপুর পাঠানো হয়। অবস্থা খারাপ হওয়ায় চাড়ালদিয়া গ্রামের সোহেল মাতুব্বারকে (২৫) ঢাকা নেয়ার পথে সন্ধ্যায় গাড়িতে তার মৃত্যু হয়।

ট্রাকচাপায় স্কুলছাত্রী নিহত ॥ গোপালগঞ্জে ট্রাকচাপায় ময়না খানম (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত ও ছয়জন আহত হয়েছে। সিলেটে মা ও ছেলে নিহত ॥ সিলেট অফিস জানায়, রবিবার বিকেল ৩টায় সিলেট তামাবিল সড়কের জৈন্তাপুর বাঘের সড়ক এলাকায় ক্যারিক্যাব নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিদ্যুতের খাম্বার সঙ্গে ধাক্কা লেগে ২জন নিহত ও ১২ জন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের রুপচেং গ্রামের অলিউর রহমানের স্ত্রী জাসমিন আক্তার (২২) ও তার ছেলে মিনহাজ উদ্দিন (৫)।