১৬ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ হানাদারমুক্ত

  • নেত্রকোনা, দাউদকান্দি ও ভালুকা

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ আজ ৯ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় নেত্রকোনা, দাউদকান্দি ও গফরগাঁও। এ উপলক্ষে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, স্থানীয় প্রশাসন ও রাজনৈতিক-সামাজিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করেছে। খবর নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানোÑ

নেত্রকোনা ॥ ৯ ডিসেম্বর নেত্রকোনা হানাদারমুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিন সকালে শত্রুমুক্ত হয় নেত্রকোনা। হাজারো মুক্তিযোদ্ধা ও স্বাধীনতাকামী মানুষের ‘জয়বাংলা’ স্লোগানে প্রকম্পিত হয় মহকুমা শহর, ওড়ানো হয় স্বাধীন বাংলার পতাকা।

প্রতি বছরের মতো এবারও গভীর শ্রদ্ধায় পালিত হচ্ছে দিনটি। এ উপলক্ষে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আয়োজিত দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে- সকালে স্থানীয় শহীদ স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ, পতাকা উত্তোলন, বিজয় র‌্যালি, দুপুরে পুরাতন কালেক্টরেট চত্বরে আলোচনা সভা এবং বিকালে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

দাউদকান্দি ॥ ১৯৭১ সালে ৯ ডিসেম্বর বেলা ১১টা পর্যন্ত যুদ্ধের পর পাকসেনারা দাউদকান্দিতে তাদের শেষ আশ্রয়স্থল সড়ক ও জনপথের বাংলোতে উঠে এবং সেখান থেকে লঞ্চযোগে মেঘনা নদী দিয়ে গজারিয়া হয়ে ঢাকায় পালিয়ে যায়। দুপুরে মুক্তিযোদ্ধারা দাউদকান্দি পৌঁছে হানাদারমুক্ত দাউদকান্দিতে স্বাধীন বাংলা লাল সবুজ পতাকা উড়ায়। দাউদকান্দি মুক্ত দিবস উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যোগে মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়েছে।

গফরগাঁও ॥ ময়মনসিংহের গফরগাঁও ৯ ডিসেম্বর পাকা হানাদার মুক্ত হয়। দিবসটি পালন উপলক্ষে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ গফরগাঁও উপজেলা কমান্ডের উদ্যোগে দিনব্যাপী কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচীর মধ্যে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, মুক্তিযোদ্ধা জনতার বিজয় র‌্যালী, মুক্তিযোদ্ধা জনতার মিলনমেলা, লঞ্চঘাটা বধ্যভূমিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা, দোয়া, মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা।