২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

’২১ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হবে ॥ তৌফিক-ই-ইলাহী

  • বিদ্যুত সাশ্রয়ী ক্যাম্প উদ্বোধন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেছেন, ২০২১ সালের মধ্যে সরকার সবার ঘরে ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দিতে চায়। এ জন্য সকলকে বিদ্যুত ব্যবহারে সাশ্রয়ী মানসিকতা সৃষ্টি করতে হবে। রাজধানীতে স্কাউটস জাতীয় সদর দফতরে বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় বিদ্যুত ক্যাম্প ’১৪ উদ্বোধনের সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপদেষ্টা এ কথা বলেন।

সারাদেশে ৪৯৪ কেন্দ্রে ৮০ হাজার সদস্য ১৮ থেকে ২১ তিন দিনের বিদ্যুত সাশ্রয়ী ক্যাম্পে অংশ নিচ্ছেন। তাদের মধ্যে ৪০ হাজার স্কাউট সদস্য রয়েছেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপদেষ্টা বলেন, সারাদেশে এই কার্যক্রম মানুষকে সাশ্রয়ী হতে উদ্বুদ্ধ করবে। বিদ্যুত ব্যবহারে শুধু উন্নতি হয় না কার্বন নিঃসরণ হয়ে থাকে এসব বিষয়ে সকলকে সচেতন থাকতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিদ্যুত জ্বালানি এবং খনিজ সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাপতি তাজুল ইসলাম বলেন, আগে আমরা কৃষিনির্ভর দেশ ছিলাম, আস্তে আস্তে শিল্পের দিকে অগ্রসর হচ্ছি। এখন আমাদের বিদ্যুতের প্রয়োজন। বেশি বিদ্যুত ব্যবহার হলে বেশি বিদ্যুত অপচয় হয় উল্লেখ করে বলেন, এখন সাশ্রয়ী উদ্যোগ নিলে এক-তৃতীয়াংশ বিদ্যুত সাশ্রয় করা সম্ভব বলে জানান তিনি।

তিন দিনব্যাপী এই ক্যাম্পে মূলত কিভাবে বিদ্যুত সাশ্রয় করা যায় তা স্কাউটদের অবহিত করা হবে। তাদের হাতে লিফলেট-পোস্টার তুলে দেয়া হবে। এসব স্কাউট নিজেদের স্কুলে এবং পরিবারে গিয়ে বিদ্যুত সাশ্রয়ী হয়ে ওঠার জন্য উদ্বুদ্ধ করবে। এরা স্কুলে গিয়েও যদি না বলে তারপরও ৮০ হাজার ছাত্রছাত্রী ৮০ হাজার পরিবারে গিয়ে বিদ্যুত সাশ্রয়ের কথা বলবে। এতে মানুষ বিদ্যুত সাশ্রয়ের পাশাপাশি বিদ্যুত সাশ্রয়ী যন্ত্রাংশ ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ হলে আমরা সার্থক হব।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব আবুল কালাম আজাদ, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মঞ্জুর হোসেন এবং স্বারাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোজাম্মেল হক খান, পাওয়ারসেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন বক্তব্য রাখেন।

প্রত্যেক জেলায় বিদ্যুত ক্যাম্প আয়োজনের জন্য স্ব স্ব জেলার জেলা প্রশাসক এবং উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে সাত সদস্যের কমিটি গঠন করা হবে। এতে স্কাউটদের পাশাপাশি বিদ্যুত বিভাগের কর্মকর্তা, স্থানীয় পুলিশ ও শিক্ষা অফিসারদের রাখা হয়েছে। বিদ্যুত বিভাগের কর্মকর্তারা ক্যাম্প আয়োজনে সার্বিক সহায়তা করবেন। উপজেলা এবং জেলা সদরে ক্যাম্প বাস্তবায়নে ২৫ হাজার টাকা দেয়া হবে। তবে ক্যাম্পের খাবার খরচ স্কাউট সদস্যরা নিজ থেকে ব্যবহার করবেন। উল্লেখ্য, আজ বিকেলে ঢাকায় স্কাউট সদর দফতরে এই ক্যাম্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী।