১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিএনপি-জামায়াতের ধ্বংসাত্মক রাজনীতি মোকাবেলা করা হবে ॥ নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে আন্দোলনের নামে হুমকি না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম। বেগম জিয়াকে উদ্দেশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, রাজাকার জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে এ দেশে নৈরাজ্য ও তা-ব চালানোর আর কোন সুযোগ আপনাকে দেয়া হবে না। অনেক মানুষ হত্যা করেছেন, আর না। স্বৈরাচারের মতো আচরণ বন্ধ করুন, তা না হলে পার পাবেন না। আন্দোলনের নামে হুমকি দেবেন না। আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের দল, আপনি ভয় দেখান কাকে? আমরা মুক্তিযুদ্ধের সৈনিকরা প্রস্তুত আছি। শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে গণতন্ত্রী পার্টির জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ সব কথা বলেন। আওয়ামী লীগসহ ১৪ দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, প্রতিটি গ্রামে, উপজেলায়, শহরে-বন্দরে সর্বত্র আপনাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। এর মাধ্যমে বিএনপি-জামায়াত জোটের ধ্বংসাত্মক রাজনীতির মোকাবেলা করতে হবে। তাহলে ভবিষ্যতে তাদের চিহ্নও খুঁজে পাওয়া যাবে না। বেগম জিয়াকে উদ্দেশ করে আওয়ামী লীগের এই প্রেসিডিয়াম সদস্য আরও বলেন, আপনি জোট বেঁধেছেন রাজাকারদের সঙ্গে। পরাজয়ের ভয়ে সময়মতো নির্বাচনে আসেননি। পরবর্তী নির্বাচনের জন্য আপনাকে পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হবে। ২০১৯ সালে নির্ধারিত সময়ের একদিন আগেও কোন নির্বাচন হবে না। সেই নির্বাচনেও জয়লাভ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দলীয় জোট সরকার গঠনে হ্যাটট্রিক করবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ নেতা হাসানুল হক ইনু বলেন, রাজনৈতিক কারণে বিভিন্ন দলের মধ্যে ঐক্য হয়। ১৪ দলের ঐক্য ন্যায় ও আদর্শের ঐক্য। এ ঐক্যের কারণেই আমরা আগের নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াতকে পরাজিত করেছি। ১৪ দলের মধ্যে যে ঐক্য ও সদ্ভাব রয়েছে উল্লেখ করে তা রক্ষার জন্য জোটের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানান তিনি। জাসদের এই নেতা বলেন, এ ঐক্যের মাধ্যমে দেশকে একটি অসাম্প্রদায়িক, জঙ্গীবাদমুক্ত ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসেবে গঠন করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন অভিযোগ করে বলেন, খালেদা জিয়া জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে নীলনক্সা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছেন। তিনি বলেন, খালেদা জামায়াতের ব্যাপারে যে ভাষায় কথা বলছেন, তা রাজনৈতিক ভাষা নয়। তিনি শুধু ষড়যন্ত্রের নীলনক্সা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছেন।

গণতন্ত্রী পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ব্যারিস্টার মোঃ আরশ আলীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন- সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া, বাংলাদেশ শান্তি পরিষদের চেয়ারম্যান মোজাফফর হোসেন পল্টু, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের আহ্বায়ক রেজাউর রশিদ খান, ন্যাপের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মোঃ ঈসমাইল, ঐক্য ন্যাপের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ সবুর, গণতন্ত্রী পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য শাহাদাত হোসেন প্রমুখ। এরপর বিকেলে নাট্যমঞ্চের পাশের মিলনায়তনে পার্টির কাউন্সিল অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়।