২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

থাপড়ানোর হুমকি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপির প্রেস কনফারেন্সে বুধবার বিকেলে দলের সহ-দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমানকে থাপ্পড় মারার হুমকি দিলেন মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন সুলতানা। কিন্তু স্বাভাবিকভাবে দেখে মনে হয় না তিনি এতটা বদমেজাজি কিংবা হিংস্র। সংবাদ সম্মেলন চলার সময় শিরীন চিৎকার করে বলছিলেন, ‘ওই শামীম থাপড়াইয়া তোর দাঁত ফেলে দেব। তুই আমারে কখনোই চোখে দ্যাখোস না,’ এই ছিল তার হুমকির ভাষা। শামীমুর রহমানের অপরাধ, সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত নেতা-কর্মীদের নাম বলতে গিয়ে তিনি শিরীন সুলতানার কথা উচ্চারণ করেননি।

এতে শামীমুর রহমানের ওপর শিরীন সুলতানা ক্ষেপে গেলেও দলের নেতাকর্মীরা তাঁর প্রতিক্রিয়াকেই অশোভন মনে করছেন। নেতাকর্মীদের মতে, দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কোথাও গেলে তাঁর সঙ্গে থাকেন শিরীন। খালেদা জিয়ার হাত ধরে টেনে নিয়ে চলাই তাঁর কাজ। অর্থাৎ চলাচলে সহযোগিতা করেন তিনি। আর এ দায়িত্ব পালন করেই প্রায়শই দম্ভ করে থাকেন শিরীন। তিনি যে খালেদা জিয়ার ঘনিষ্ঠজন তা প্রকাশে সবসময়ই সরব তিনি। আর এ কারণেই তিনি কেন্দ্রীয় কমিটির একজন দায়িত্বশীল নেতাকে এভাবে গালি দিয়ে হয়ত নিজের ক্ষমতা জাহির করেছেন।

বিকেলে নয়াপল্টনে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যখন সাংবাদিক সম্মেলন করছিলেন তখন শিরীন ও শামীম ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দলের অনেকেই। শামীমুর রহমান শুরুতে দাঁড়িয়ে নেতা-নেত্রীদের পরিচয় করিয়ে দেন। কেবল বাদ পড়ে থাকে শিরীন সুলতানার নাম। এক সময়ের ডাকসু নেতা শিরীন সুলতানা এতে ক্ষিপ্তই হন। তিনি বেশ রেগেমেগে শাসাতে থাকেন শামীমুরকে। এতে উপস্থিত সবাই হকচকিয়ে যান। নেতারা দ্রুতই শিরীন সুলতানাকে শান্ত করলে সাংবাদিক সম্মেলন শুরু হয়।