২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বৃহত্তর ময়মনসিংহে ৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে বিদ্যুত প্রকল্পের কাজ শেষ

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ বৃহত্তর ময়মনসিংহ ও সিলেট অঞ্চলের অবহেলিত বিদ্যুত খাত সংস্কার ও উন্নয়নে ৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পের কাজ শেষ হয়েছে। জাপানী দাতাসংস্থা জাইকার অর্থ সহায়তায় বিদ্যুতের নতুন সঞ্চালন লাইন স্থাপন ও উপকেন্দ্রের উন্নয়নসহ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহে জরাজীর্ণ বিদ্যুত লাইনের সংস্কার কাজ করা হয় এই প্রকল্পের আওতায়। টার্ন কি চুক্তির মাধ্যমে বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ড-পিডিবির সেন্ট্রাল জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশনের আওতায় ভারতের কলকাতার এভারেস্ট এনার্জি ইনফ্রা লিমিটেড নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষে ঢাকাস্থ মেসার্স কেজেসি এই উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করে। লো ভোল্টেজ সমস্যার সমাধানসহ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুত সরবরাহ নিশ্চিত করতেই এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়। স্বাধীনতার পর বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার মেয়াদে বৃহত্তর সিলেট ও ময়মনসিংহের বিদ্যুত খাত উন্নয়নে এটিই সবচেয়ে বড় বরাদ্দ বলে দাবি স্থানীয় বিদ্যুত কর্মকর্তাদের।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহত্তর ময়মনসিংহ ও সিলেটে ৩৩ কেভি নতুন বিদ্যুত সঞ্চালন লাইন নির্মাণসহ ৩৩/১১ কেভি বিদ্যুত উপকেন্দ্র নির্মাণে ৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩৩ কেভি প্যাকেজ-১ নামে প্রকল্প হাতে নেয় পিডিবি। ২০১২ সালের জুনে শুরু হওয়া প্রকল্পে কাজ শেষ হয়েছে ডিসেম্বরে।

সেন্টমার্টিনে নৌডুবি, ৫ জেলে উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ যুদ্ধাপরাধী মীর কাশেম আলীর মালিকানাধীন সেন্টমার্টিন রুটে চলাচলকারী জাহাজ কেয়ারি সিন্দাবাদের ধাক্কায় সাগরে ডুবে যাওয়া পাঁচ জেলেকে উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে সেন্টমার্টিন থেকে টেকনাফ আসার পথে নাফ নদীর মোহনায় জাহাজটি একটি ফিশিং বোটকে ধাক্কা দেয়। এতে নিখোঁজ হয়ে পড়ে ৫ জেলে। নৌডুবির খবর পেয়ে সেন্টমার্টিন থেকে এসবি ভাই ভাই নামের একটি বোট নিয়ে জাহাঙ্গীর ও জয়নাল আবেদীন মাঝি দ্রুত নাফ নদীর মোহনায় তল্লাশি চালায়। উদ্ধার হওয়া ৫ জেলে হচ্ছে- আসাদ উল্লাহ, করিম উল্লাহ, রহিম উল্লাহ, খলিলুর রহমান ও নজির আহমদ।

নির্বাচিত সংবাদ