২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিমান আবিষ্কার করেছেন ভারতীয় ঋষিরা !

ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেসে আমন্ত্রিত এক বক্তার বক্তব্য নিয়ে বির্তক চলছে। সম্মেলনের তালিকাভুক্ত ওই বক্তৃতাটি বাদ দেয়ার দাবি জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নাসা রিসার্চ সেন্টারের দুই শ’ বিজ্ঞানীর স্বাক্ষরসহ অনলাইনে শুরু হয়েছে প্রতিবাদ। খবর ওয়েবসাইটের।

ওই বক্তা হলেন বিমান চালনা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সাবেক প্রিন্সিপাল ক্যাপ্টেন আনন্দ বোড়াস। তিনি বলেছেন, ইতিহাসের প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক ভাষ্য আছে। প্রাতিষ্ঠানিক ইতিহাস শুধু বলে, ১৯০৩ সালে রাইট ভাইয়েরা প্রথম বিমান উড়িয়েছিলেন। মুম্বাইয়ে অনুষ্ঠিত ওই সম্মেলনে রবিবার দেয়া বক্তব্যে তিনি দাবি করেছেন, সাত হাজার বছর আগে বৈদিক যুগে ভারতীয় ঋষিরা প্রথম বিমান উদ্ভাবন করেছিলেন, সেই বিমান গ্রহ থেকে গ্রহান্তরে ভ্রমণ করতে পারা এবং যখন-তখন শূন্যে থেমে যেদিকে খুশি সেদিকে যেতে পারত। আনন্দ বোড়াসের বক্তৃতায় বিজ্ঞানের সঙ্গে পুরাণতত্ত্বকে মিশিয়ে ফেলা হয়েছে, আর তা মানুষকে বিভ্রান্ত করছে বলে এর সমালোচনা করেছেন ওই বিজ্ঞানীরা। এ বিষয়ে তারা অনলাইনে এক পিটিশন করেছেন। এ বিষয়ে বোড়াস বলেছেন, ‘আমি কোনো অনলাইন পিটিশনের কথা শুনিনি। এটি হাতে পাওয়ার পর তা নিয়ে ভাবা যাবে।’ সম্মেলনে উপস্থিত ভারতের পরিবেশমন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর বলেছেন, প্রাচীন ভারতের বিজ্ঞান তত্ত্বগুলো তাৎক্ষণিক পর্যবেক্ষণ ও যুক্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত। এসব জ্ঞানকেও স্বীকৃতি দিতে হবে।

সব শিশুর জন্য উপহার

সিঙ্গাপুর এ বছর সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছে। তাই দেশটিতে এ বছর যত শিশু জন্ম নেবে, তাদের প্রত্যেককেই সরকারের পক্ষ থেকে উপহারের বাক্স পাঠানো হবে। দেশটির প্রবাসীরাও এই উপহার পাবে। এই উপহার হবে বর্তমান প্রজন্মের পক্ষ থেকে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য শুভেচ্ছা। উপহারের বাক্সে শিশুকে কোলে ঝুলিয়ে রাখার জন্য একটি ব্যাগ বা বেবি সিøং, পোশাক ও ন্যাপি ব্যাগ থাকবে। শিশুর পোশাক ও ব্যাগে লেখা থাকবে ‘আই এ্যাম গোল্ডেন জুবিলি বেবি’। শিশুর বড় হওয়ার স্মরণীয় মুহূর্তগুলো ধরে রাখার জন্য মা-বাবাকে একটি স্ক্র্যাপবুকও দেয়া হবে। এছাড়াও দেশটির শীর্ষ একটি ব্যাংকের পক্ষ থেকেও উপহার দেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এতে থাকবে হাত ও পায়ের মোজা, একটি সেলফি স্টিক এবং পয়সা জমানোর বাক্স। ফিনল্যান্ডে ১৯৩০ সাল থেকেই প্রতিটি নবজাতককে পোশাক, ন্যাপি, ছোট তোষক উপহার দেয়া হয়। -বিবিসি।

নির্বাচিত সংবাদ