২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খালেদার গুলশান অফিসের নিরাপত্তা তুলে নেয়ার আহ্বান মায়ার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের নিরাপত্তা বেষ্টনী তুলে নেয়ার আহ্বান জানিয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম বলেছেন, খালেদা জিয়া নাশকতা, সন্ত্রাস আর বোমাবাজি করে মানুষ হত্যাকা-ের মাধ্যমে দেশের যে পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে, তাতে দেশের মানুষ ফুঁসে উঠেছে। আজকে খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা তুলে নেয়া হলে তাঁর ওই বাড়ির একটি ইটও খুঁজে পাওয়া যাবে না। তাই আমি প্রধানমন্ত্রীকে বলব, ওই বাড়ির নিরাপত্তা বেষ্টনী তুলে নেয়া হোক। কিন্তু এত কিছুর পরও প্রধানমন্ত্রী তাঁর নিরাপত্তা দিয়ে যাচ্ছেন। শনিবার বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে মায়া চৌধুরী এসব কথা বলেন। বৈঠকে আগামী ২০ জানুয়ারি রাজধানীর গাবতলীতে ১৪ দলের শান্তি মিছিল ও সমাবেশের কর্মসূচীর ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, এই মাসে ঢাকায় আরও শান্তি মিছিল ও সমাবেশ করা হবে। বৈঠকে ত্রাণমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি আসলে সন্ত্রাসী দল। অবরোধের নামে তারা মানুষ হত্যা করছে। তাই যারা সন্ত্রাসী কর্মকা- করে তাদের সেই কায়দায়তেই দমন করা হবে। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া ওই বাড়িতে বসে ষড়যন্ত্র করছে। সন্ত্রাস ও নাশকতার উস্কানি দিচ্ছেন। দলীয় নেতাকর্মীরা দেখা করছেন, পরামর্শ করছেন। ত্রাণমন্ত্রী আরও বলেন, সুশীল সমাজের উদ্দেশ তিনি বলেন, কি নাগরিক কমিটি নাকি ছাগল-পাগল কমিটি করেছেন, তারা আলোচনার কথা বলেন। আরে আমরা তো বিএনপিকেই ডাকি না। আর আপনারা কোথায়! বিএনপিকে উদ্দেশ করে মায়া বলেন, আর কোন সন্ত্রাস ও ষড়যন্ত্র সহ্য করা হবে না।

এ সময় খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, আইএসআই ও আল কায়েদার মতো বিএনপিকে নির্মূল করা হবে। জাতিসংঘ আহ্বান জানিয়েছে তাঁদের সঙ্গে সংলাপ করতে। আইএসআই এবং লাদেনের সঙ্গে তো আপনারা (জাতিসংঘ) কোন আলোচনা করেন না। তাঁদের যে প্রক্রিয়াই নির্মূল করা হয়েছে, বাংলাদেশেও যাঁরা লাদেন মার্কা রাজনীতি করেন তাঁদের বিরুদ্ধে একই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ঢাকা মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন সহসভাপতি মুকুল চৌধুরী, ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, বজলুর রহমান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ সেলিম এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, দফতর সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মিলন, উপ-দফতর সম্পাদক জামাল উদ্দিন প্রমুখ।

গুলশান থেকে বিএনপির কার্যালয় সরিয়ে দেয়ার দাবি ড. হাছানের ॥ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি কূটনৈতিকপাড়ার নিরাপত্তার স্বার্থে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক কার্যালয় গুলশান থেকে অবিলম্বে সরিয়ে নেয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছেন।

রবিবার দুপুরে সেগুনবাগিচার বীরউত্তম খাজা নিজাম উদ্দিন মিলনায়তনে স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত চলমান রাজনীতি শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানিয়ে বলেন, যে দলের নেতাকর্মীরা রাজনীতিকে এখন নিজেদের হীন উদ্দেশে চোরাগোপ্তা হামলা চালিয়ে শিশু ও নারীসহ সাধারণ মানুষ হত্যা করছে, সেই দলের অফিস কোন দেশের কূটনৈতিক এলাকায় থাকা মোটেও নিরাপদ নয়। স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি হাসিবুর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, অরুণ অরকার রানা প্রমুখ।