২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রামেক বার্ন ইউনিট ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণের প্রস্তাব

  • বাড়ছে দগ্ধ রোগী, হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকরা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ বিএনপি ও জামায়াত-শিবির চক্রের অব্যাহত চোরাগোপ্তা হামলা ও নাশকতায় দগ্ধ হয়ে রাজশাহী মেডিক্যালের বার্ন ইউনিটে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। তবে পর্যাপ্ত সুবিধা না থাকায় স্বল্প পরিসরের এ ইউনিটে চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসক ও নার্সদের। এ কারণে ইউনিটের আনুসঙ্গিক সুবিধা বাড়ানোর পাশাপাশি এটিকে ৫০ শয্যায় উন্নতিকরণের জন্য একটি প্রস্তাবনা সম্প্রতি মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত বছরের ২৪ জুলাই থেকে এ হাসপাতালে বার্ন ইউনিট চালু করা হয়। মাত্র ২৪ শয্যা নিয়ে এ ইউনিটের কার্যক্রম একজন সহকারী অধ্যাপক, একজন রেজিস্ট্রার ও দুইজন সহকারী রেজিস্ট্রারসহ মোট চারজন চিকিৎসক দিয়ে চালানো হচ্ছে। শুরু থেকেই এ ইউনিটে রোগীর ভিড় লেগেই থাকে। কিন্তু পর্যাপ্ত সুবিধা না থাকায় তাদের চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসক, নার্সদের। বর্তমানে এ ইউনিটে ৩৪ জন রোগী ভর্তি রয়েছে। মারাত্মক দগ্ধদের আইসিইউতে রাখার জন্য চিকিৎসক পরামর্শ দিলেও, সঙ্কুলান না হওয়ায় নীবিড় চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। বর্তমানে আইসিইউতে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১০ জন। অন্যদিকে এই ওয়ার্ডের পৃথক অপারেশন থিয়েটার থাকার কথা থাকলেও সেটি এখনও স্থাপন করতে না পারায় রোগীদের অপারেশন কার্যক্রম করতে গিয়েও দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে চিকিৎসকদের। রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসির উদ্দিন বলেন, রোগীর সংখ্যা বাড়ার কারণে এরই মধ্যে এটিকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করার পাশাপাশি এখানকার পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর জন্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে। তিনি জানান, ৫০ শয্যার অনুমতি পেলে এখানে আলাদা ৫ শয্যার আইসিইউ, ৫ শয্যার পোস্ট অপারেটিভ কক্ষ, অপারেশন থিয়েটারসহ সব সুবিধায় হয়ত পাওয়া যাবে।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া