১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে গ্রেফতার দাবি

  • হরতাল-অবরোধে হত্যাযজ্ঞ

সংসদ রিপোর্টার ॥ হরতাল-অবরোধের নামে হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে যাওয়ায় হত্যাকারী হিসেবে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন জাসদের কার্যকরী সভাপতি মঈনউদ্দিন খান বাদল ও সরকারী দলের হুইপ মাহবুব আরা গিনি। সংসদে প্রশ্ন রেখে তাঁরা বলেন, আর কত মায়ের বুক খালি হলে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করা হবে? দ্বিধাদ্বন্দ্ব ঝেড়ে ফেলে দ্রুত খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করে আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করালে আগুনে পুড়ে মৃত্যুবরণকারী নিরীহ মানুষদের আত্মা কিছুটা হলেও শান্তি পাবে।

বুধবার ডেপুটি স্পীকার এ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে তাঁরা এ দাবি জানান। মঈনউদ্দিন খান বাদল বলেন, যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহার্য আরডিএক্স সীমান্তে ধরা পড়েছে। বোমাবাজদের সরকার শক্তহাতে দমন করছে বলেই নতুন উপসর্গ হিসেবে আরডিএক্স আনা হচ্ছে। আমার পৈত্রিক বাড়ি যারা পুড়িয়েছে, তাদের ১১ জন ধরা পড়েছে। তাদের ৫/৬ জন স্বীকার করেছে যে, তারা বাড়িটি পুড়িয়েছে। আরও কয়েকজন এমপির বাড়ি পোড়ানো এবং সম্ভব হলে তাদের খুন করারও নির্দেশ আছে। তিনি বলেন, সরকার ও বিরোধী দলের সকল এমপি বলছেন, খালেদা জিয়া খুনী। এমনকি প্রধানমন্ত্রীও বলছেন। তিনি যদি সিরিয়াল খুনীই হন, তাহলে তাঁকে বাইরে রাখা হচ্ছে কেন? তাঁকে ধরে আনার দায়িত্ব কার? সরকারের দায়িত্ব জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দেয়া। তাহলে কীসের অপেক্ষায় আছেন? এই বিষাক্ত সাপকে ছেড়ে রাখা যায় না। হয় দমন করতে হবে, নইলে খাঁচায় বন্ধ করতে হবে।

তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি প্রশ্ন রেখে বলেন, যিনি পুড়িয়ে মানুষকে খুন করছেন, তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছেন না কেন? খালেদা জিয়া কী আইনের উর্ধে? উনি কি সবকিছুতেই ইমিউনিটি (দায়মুক্তি) পাবেন? সংসদ কি তাঁকে দায়মুক্তি দিয়েছে? তিনি বলেন, একটি আরডিএক্স বিস্ফোরণ ঘটলে ২শ’ মানুষের জীবন একবারে চলে যাবে। সেই অবস্থার জন্য কি অপেক্ষা করা হচ্ছে? যিনি মানুষকে পুড়িয়ে মারছেন তাঁকে ধরা হচ্ছে না কেন? খালেদা জিয়া সাধারণ নাগরিক হলে প্রত্যেকটা খুনের জন্য হত্যা মামলা করতেই হবে। উনি দেশের ৬৪ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি করেছেন। তবুও বিএনপি নেত্রীকে ধরতে এত দ্বিধাদ্বন্দ্ব কেন? উনাকে ধরলে হয়ত ১০টি বোমা বেশি পড়বে, তবুও দেশের মানুষ শান্তি পাবে।

নিজের নির্বাচনী এলাকা গাইবান্ধায় পেট্রোলবোমা মেরে সাত জন নিরীহ মানুষকে হত্যার দায়ে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছেন সরকারী দলের হুইপ মাহবুব আরা গিনি। যে রাজনৈতিক দল কর্মসূচী দেবে, সেই কর্মসূচীতে কোন প্রাণহানি বা সম্পদহানি ঘটলে সেই দলকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। প্রয়োজনে কর্মসূচী ঘোষণাকারী দলের নেতাদের বাড়ি-সম্পদ বিক্রি করে এই ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। পয়েন্ট অব অর্ডারে তিনি এ দাবি জানিয়ে বলেন, গাইবান্ধার মানুষ খুনী খালেদা জিয়ার বিচার চায়। আমরা নির্দেশ চাই, জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ঘেরাও করে খালেদা জিয়ার বিচার করব।