১৭ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রেমে যিনি হয়েছিলেন ব্যাংক ডাকাত

ভালবাসার মানুষের ইচ্ছাপূরণের জন্য এক সমকামী ব্যক্তি একবার নিউইয়র্কে ব্যাংক ডাকাতি করতে গিয়েছিলেন। তবে সঙ্গী ও অস্ত্রশস্ত্রসহ ব্যাংকে প্রবেশ করলেও সফল হতে পারেননি তিনি।

১৯৭২ সালের অগাস্টে ঘটা সেই ঘটনা নিয়ে ‘ডগ ডে অফটারনুন’ নামের একটি চলচ্চিত্র তৈরি হচ্ছে। বেশ কয়েকটি প্রামাণ্য চিত্রের অনুপ্রেরণাও যুগিয়েছিল ওই ডাকাতি প্রচেষ্টার ঘটনা। খবর বিবিসির।

সমকামী জন ভোজতোভিজ ভালবাসেন তার পুরুষসঙ্গী আর্নেস্ট অ্যারনকে। এক বছর আগে ঘটা করে তারা বিয়েও করেন। কিন্তু বিয়ের পর অ্যারন নারীর দেহকাঠামো পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠেন।

নিজের এ মনোবাসনা পূরণ না হওয়ায় বিমর্ষ অ্যারন আত্মহত্যার চেষ্টাও করেন। তাতে সফল না হলেও গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। অসুস্থ অ্যারনের ইচ্ছাপূরণ করার সিদ্ধান্ত নেন ভোজতোভিজ। লিঙ্গ পরিবর্তনের জন্য অস্ত্রোপচারের প্রয়োজনীয় টাকা তিনি ব্যাংক ডাকাতি করে সংগ্রহ করার পরিকল্পনা করেন। যেমন ভাবা তেমন কাজ।

১৯৭২ সালের ২২ অগাস্ট, ভোজতোভিজ ও অপর দুইসঙ্গী স্যালভাতর নাটুরালে ও ববি ওয়েস্টেনবার্গ, শটগান হাতে চেস ম্যানহাটন ব্যাংকের ব্রুকলিন শাখায় হানা দেন। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই তাদের পরিকল্পনা ভেস্তে যায়। ওয়েস্টেনবার্গ ডাকাতি ছেড়ে ব্যাংক থেকে বের হয়ে যান। তার অপর দুইসঙ্গী ব্যাংক কর্মীদের জিম্মি করে টাকা লুট করতে শুরু করেন। কিন্তু ব্যাংকের সেইফ অর্ধেক খালি হয়েছে মাত্র, এমন সময় ব্যাংকের এককর্মী অ্যালার্ম বাজিয়ে দেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই পুলিশ পুরো ব্যাংক ভবনটি ঘিরে ফেলে। ভোজতোভিজরা ব্যাংকের আটকর্মীকে জিম্মি করে ভিতরে অবস্থান নেন। ব্যাংকের বিপরীত দিকের একটি বিউটি পার্লারে অবস্থান নিয়ে পুলিশ তাদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন।

পুলিশের সঙ্গে দুই ঘণ্টা আলোচনার পর ভোজতোভিজ জিম্মিদের মুক্তির বিনিময়ে নিজের শর্তগুলো তুলে ধরেন। নিজ ‘স্ত্রী’ অ্যারনকে কিংস কান্ট্রি হাসপাতাল থেকে এনে দিতে বলেন। কিন্তু ঘটনাস্থলে এসে ভোজতোভিজের সঙ্গে কথা বলতে অস্বীকার করেন অ্যারন।