১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হাসি মুখে যুক্তিতর্ক দিন

  • ইরানী পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে খামেনির পরামর্শ

ইরানের শীর্ষ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফকে পরামর্শ দিয়েছেন যে, পরমাণু কর্মসূচী নিয়ে পশ্চিমাদের সঙ্গে মীমাংসা বৈঠকে তিনি যেন জোর গলায় কথা না বলেন। মন্ত্রী স্বীকার করেছেন হাসিমুখে যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের উপদেশ দেয়া হয়েছে তাকে। খবর বিবিসির।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির সঙ্গে সাম্প্রতিক কিছু বৈঠকে মন্ত্রী জারিফ একসময় এতটাই উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলেন যে তার জোর গলা শুনে উদ্বিগ্ন নিরাপত্তা রক্ষীরা উঁকিঝুকি পর্যন্ত দিয়েছে।

ইরানের ইসলামিক রিপাবলিক নিউজ এজেন্সি লিখছে, এসব কথা সম্ভবত আয়াতুল্লাহ খামেনি শুনেছেন। সম্প্রতি একদল ছাত্রের সঙ্গে খোলামেলা কথোপকথনে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার সঙ্গে খামেনির বৈঠকের কথা তুলে ধরেন।

জারিফ বলেন, তিনি আমাকে বলেছেন, তুমি বৈঠকে বসে কেন চিৎকার করো? যা বলার হাসিমুখে বলবে...যা বলার তা যুক্তি দিয়ে বলো, খামাখা তর্ক করবে না। গত জানুয়ারিতে ইরানের কট্টরপন্থীরা জারিফের সমালোচনা করেন যে তিনি তার মার্কিনী প্রতিপক্ষের সঙ্গে খুব বেশি বন্ধুসুলভ আচরণ করছেন।

জেনিভাতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে তার হেঁটে বেড়ানোর একটি ছবি প্রকাশিত হলে, সে ব্যাপারে সংসদে ব্যাখ্যা দেয়ার দাবি তোলেন অনেক এমপি। তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ মীমাংসা আলোচকদের এভাবে প্রকাশ্যে সমালোচনা করার নিন্দা করেন স্বয়ং প্রেসিডেন্ট রুহানি। প্রেসিডেন্ট বলেন, এ ধরনের সমালোচনা জাতীয় স্বার্থের বিরোধী। ইরান তাদের পারমাণবিক কর্মসূচী নিয়ে ছ’টি পশ্চিমা দেশের সঙ্গে আপোস মীমাংসা করছে। এই প্রক্রিয়া নবেম্বর শেষ হওয়ার কথা থাকলেও, তা দীর্ঘায়িত হচ্ছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ জটিল এই মীমাংসায় ইরানের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।