২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সান্তাহার স্টেশন মাস্টারের বিরুদ্ধে ট্রেনের টিকেট কালোবাজারির অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, সান্তাহার, ২১ ফেব্রুয়ারি ॥ মাত্র ৪ মাসের ব্যবধানে শুক্রবার বগুড়ার সান্তাহার রেলওয়ে জংশন স্টেশনে ফের ট্রেনের টিকেট কালোবাজারির ঘটনা ঘটেছে। এবার কালোবাজারির হোতা হিসেবে খোদ স্টেশনমাস্টারের বিরুদ্ধে অভিযোগ মিলেছে। অভিযোগে বলা হয়েছে, ঢাকাগামী শুক্রবারের দ্রুতযান আন্তঃনগর ট্রেন নির্ধারিত সময় থেকে ৬ ঘণ্টা বিলম্বে বিকেল সাড়ে ৫টায় সান্তাহার ছেড়ে যায়। এরপর স্টেশনমাস্টার কর্তৃক ট্রেনের বিলম্ব দেখিয়ে ৭টি টিকেট ফেরত দেয়ার ঘটনা এ দিন রাতে জানাজানি হয়। এরপর স্টেশনমাস্টারের ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি করা নিয়ে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। হৈ চৈ পড়ে যায় স্টেশন এলাকায়। তাঁরা তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাটি রেলওয়ে পাকশী বিভাগীয় ম্যানেজার ও বাণিজ্যিক কর্মকর্তাকে মোবাইল ফোনে অবহিত করেন। পরে সুষ্ঠু ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে বিক্ষুব্ধ পরিস্থিতি শান্ত হয়। এর আগে গত বছরের ২১ অক্টোবর ট্রেনের টিকেট কালোবাজারি নিয়ে তুলকালাম কা- এবং সান্তাহার রেলওয়ে থানায় মামলা দায়েরের ঘটনা ঘটেছিল। কিন্তু সরকারদলীয় নেতাদের হস্তক্ষেপে মামলাটি ধামাচাপা পড়ে যায়।

এ ব্যাপারে পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার এবং বাণিজ্যিক কর্মকর্তা স্থানীয় সরকারদলীয় নেতাদের মাধ্যমে স্টেশনমাস্টার নিজাম উদ্দিন দেওয়ানের টিকেট কালোবাজারির ঘটনা জেনেছেন বলে জানান। স্টেশনমাস্টার বলেন, ভিআইপি শ্রেণী এবং আত্মীয়স্বজনের জন্য কিছু টিকেট সংরক্ষণ করা এবং ফেরত দেয়ার অধিকার আমার রয়েছে।