২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রেলওয়ের নিরাপত্তায় জনবল সঙ্কট

  • ৩ বছরেও পরিবর্তন হয়নি

স্টাফ রিপোর্টার, ঈশ্বরদী ॥ রেলওয়ের সম্পদ রক্ষা, যাত্রীদের নিরাপত্তা বিধানসহ নাশকতা ঠেকাতে নিরাপত্তা বাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। সরকারের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য অনেক বিশেষায়িত বাহিনী গঠন করা হয়েছে। কিন্তু রেলওয়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থার কোন পরিবর্তন করা হয়নি। লোকবল ও সরঞ্জামও বৃদ্ধি করা হয়নি। ফলে এ বাহিনীতে বর্তমানে ভয়াবহ নাজুক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। জরুরীভিত্তিতে লোকবল ও সরঞ্জাম বৃদ্ধি করা না হলে বাংলাদেশ রেলওয়ের নিরাপত্তা ও নাশকতা ঠেকানো অসম্ভব হয়ে পড়বে। নিরাপত্তা বাহিনীর পশ্চিম ও পূর্বাঞ্চলের একাধিক অফিস, ঢাকা, রাজশাহী এবং চট্টগ্রাম রেল ভবনের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ও সদস্যদের দেয়া তথ্যসূত্রে এসব জানা গেছে।

সূত্রমতে, ১৯৮৫ সালে কোনরকম পর্যালোচনা না করে দেশের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় নিরাপদ, জনমুখী যোগাযোগ ও পরিবহন বিভাগ বাংলাদেশ রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনীর লোকবল কমিয়ে দেয়া হয়। গত ৩০ বছরে রেলওয়ের নিরাপত্তা কাজের পরিধি ও নাশকতামূলক ঘটনা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। ইয়ার্ড, ইঞ্জিন, ওয়াসপিট, রেললাইন, বিভিন্ন প্রকার ট্রেন, রেল সম্পদ, ব্রিজ ও স্টেশনসহ বিভিন্ন স্থাপনা পাহারা ও নিরাপত্তা বিধানের দায়িত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। একেক বিটে ৩ জনের পরিবর্তে একজন প্রহরীকে দিয়ে বছরের পর বছর অমানবিকভাবে দায়িত্ব পালন করানো হচ্ছে। সময়ের পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন প্রকার অপরাধমূলক কর্মকা-ের ধরনও পরিবর্তন হয়েছে। অথচ বাংলাদেশ রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনীতে কোন উন্নয়ন বা পরিবর্তন করা হয়নি।