১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খুলনায় সেতু নির্মাণে শম্বুক গতি ॥ জনদুর্ভোগ বাড়ছে

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনার পাইকগাছা উপজেলার বোয়ালিয়া নামক স্থানে কপোতাক্ষ নদের উপর সেতু নির্মাণের কাজ হচ্ছে ধীর গতিতে। এক দফা সময় বাড়ানোর পরও বর্ধিত সময়ে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে না বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেতুটির নির্মাণ কাজে ধীর গতির কারণে নদী পারাপারে জনগণের দুর্ভোগ প্রলম্বিত হচ্ছে। এলাকাবাসী সেতুটির নির্মাণ কাজ দ্রুত সম্পন্ন করার দাবি জানিয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, পাইক উপজেলার রাড়ুলী-গদাইপুর ইউনিয়ন সীমান্তের বোয়ালিয়া নামক স্থানে খেয়াঘাট রয়েছে। কপোতাক্ষ নদের এই ঘাট পার হয়ে পাইকগাছার রাড়ুলী ইউনিয়ন ও সাতক্ষীরা জেলাসদরসহ বুধহাটা, আশাশুনি, দেবহাটা প্রভৃতি স্থানে প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ যাতায়াত করে। নদী পারাপারে বিশেষ করে ভাটার সময় পানি কাদা পেরিয়ে নৌকায় উঠে নদী পার হতে হয়। মালামাল পারপারে মারাত্মক সমস্যায় পড়তে হয়। এ দুরবস্থা লাঘব ও নদী পারাপার সহজ করার জন্য বোয়ালিয়া ঘাটে সেতু নির্মাণের পদক্ষেপ নেয় সরকার। সে অনুযায়ী ২০১২ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বোয়ালিয়ায় সেতু নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়। দরপত্র অনুযায়ী ২০১৪ সালের এপ্রিল মাসের মধ্যে সেতুটির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নির্মাণ কাজ অর্ধেকের মতো সম্পন্ন হয়। এ অবস্থায় দ্বিতীয় দফায় আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে। বর্ধিত সময়ের মেয়াদ শেষ হতে আর মাত্র তিন মাস বাকি। এখন পর্যন্ত সেতুর গার্ডার ও ৩টি স্প্যানের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে এবং দু’টি স্প্যানের কাজ চলছে। এছাড়া সেতুটির উভয় পাড়ের সংযোগ সড়কের নির্মাণ কাজ এখনও শুরু হয়নি। নদীর পশ্চিম (বাঁকা-রাড়ুলী) পাড়ে ২৪৫ মিটার ও বোয়ালিয়া পাড়ে ১৮৬ মিটার সংযোগ সড়ক নির্মাণ করতে হবে।