২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জেলে যেতে রাজি, তবুও স্বর্ণের সন্ধান দেবেন না

মার্কিন এক গুপ্তধন সন্ধানী কারাগারে যেতেও রাজি। তবুও তিনি প্রাচীন একটি জাহাজের ধ্বংসাবশেষ থেকে পাওয়া স্বর্ণের তথ্য দেবেন না। ডুবে যাওয়া একটি জাহাজ থেকে ১৯৮৮ সালে কয়েক কোটি ডলারের সোনা উদ্ধার করেন সমুদ্র প্রকৌশলী টমি থম্পসন।

এসএস সেন্ট্রাল আমেরিকান নামের ওই জাহাজটি ঝড়ের কবলে পড়ে ১৮৫৭ সালে ডুবে গিয়েছিল। মার্কিন ব্যাংকগুলোর জন্য সোনার বার আর কয়েন বহন করছিল জাহাজটি। তবে সোনা উদ্ধারের পর থম্পসনের বিরুদ্ধে উদ্ধারকৃত সোনার ভাগাভাগি নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন তাঁর পৃষ্ঠপোষকরা। জাহাজটি থেকে সোনা উদ্ধারের জন্য ১৬১ জন পৃষ্ঠপোষক থম্পসনকে এক কোটি ২৫ লাখ ডলারের বেশি অর্থ দেন। কিন্তু পরিত্যক্ত জাহাজটি থেকে সোনা তোলার পর আর তিনি তাঁদের ভাগ দেননি। পরে তিনি সেগুলো একটি প্রতিষ্ঠানের কাছে পাঁচ কোটি ডলারের বেশি মূল্যে বিক্রি করে দেন। এরপরই পৃষ্ঠপোষকরা তার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন। সেই মামলায় দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর থম্পসনকে কিছুদিন আগে গ্রেফতার করা হয়। সোনার ভাগ নিয়ে আদালতে মামলা শুরু হওয়ার পর ২০১২ সাল থেকে তাঁকে এবং তাঁর সহযোগী আলিসন আস্তেখেইরকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পুলিশ বলেছে, এই মামলা শুরু হওয়ার পর থম্পসন ও আস্তেখেইর ফ্লোরিডার একটি হোটেলে লুকিয়ে ছিলেন। গ্রেফতারের সময় তাঁর সঙ্গে ছিল চার লাখ ডলার। -বিবিসি