২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চট্টগ্রামে গৃহপরিচারিকা হত্যার মিথ্যা মামলায় বেকায়দায় তদন্ত কর্মকর্তা

  • ব্যবসায়ী কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামে হাত-পা বেঁধে ও মাথায় গরম পানি ঢেলে কিশোরী গৃহপরিচারিকা হত্যার মিথ্যা ঘটনায় মামলার পরামর্শ দিয়ে বেকায়দায় পড়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা। গৃহপরিচারিকা তাসলিমা (১৪) কোতোয়ালি থানার মাধ্যমে আদালতে হাজির হয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে শুক্রবার। শুধু তাসলিমাই নয়, তার খালা অর্থাৎ মামলার বাদী পরিষ্কার বেগম, মা হাসিনা বেগম, গৃহপরিচারিকা হিসেবে নিয়োগদাতা হানিফসহ ৪ জন নওরীন আক্তার কাঁকনের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দায়িত্ব অবহেলা থেকে নিজেকে বাঁচাতে ওই চারজনের ১৬৪ ধারার জবানবন্দী গ্রহণের জন্য আদালতের কাছে আবেদন জানিয়েছে শুক্রবার বিকেলে। প্রশ্ন উঠেছে, তাসলিমা গত বৃহস্পতিবার রাতেই তার বেঁচে থাকার খবর কোতোয়ালি থানায় পৌঁছালে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। কিন্তু শুক্রবার সকালে তাসলিমাকে আদালতে সোপর্দ না করে বিকেলে সোপর্দ করায় প্রশ্ন উঠেছে। এমনকি ভিকটিম উদ্ধারের পরও ব্যবসায়ী সাজুর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলে নিতে কোন ধরনের সহায়তা করেনি বলে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এছাড়া তাসলিমার খালা মিথ্যা মামলা দেয়ার অভিযোগে কোন ধরনের পদক্ষেপ নেয়নি পুলিশ। কোতোয়ালি থানার এসআই মহিবুর রহমান এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে প্রাথমিক তদন্তে টেরিবাজারের ব্যবসায়ী শহীদুল্লাহ সাজুকে জেলহাজতে ঢুকিয়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।