২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খালেদা জিয়াকে আচরণবিধি মেনে প্রচার চালাতে মির্জা আব্বাসকে চিঠি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে আচরণবিধি মেনে নির্বাচনী প্রচার চালানোর জন্য বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মির্জা আব্বাসকে চিঠি দেয়া হয়েছে। বুধবার ঢাকা দক্ষিণের রিটার্নিং কর্মকর্তা এ বিষয়ে সতর্ক করে চিঠি দেন। ঢাকা দক্ষিণের রিটার্নিং কর্মকর্তার স্টাফ অফিসার নওয়াবুল ইসলাম জনকণ্ঠকে বলেন, গাড়িবহর নিয়ে নির্বাচনী প্রচার চালানোর কারণে জনগণের চলাচলে বিঘœ সৃষ্টি হওয়ার কারণে এ চিঠি দেয়া হয়েছে। চিঠিতে আচরণবিধি মেনে গাড়িবহর না নিয়ে নির্বাচনী প্রচার চালানো আহ্বান জানানো হয়েছে। এছাড়া ঢাকা উত্তরের বিএনপি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালকেও আচরণবিধি মেনে নির্বাচনী প্রচার চালাতে চিঠি দেয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করেন দক্ষিণের রিটার্নিং অফিসারের স্টাফ অফিসার নজরুল ইসলাম। তবে তাবিথ আউয়ালের চিঠিতে খালেদা জিয়ার বিষয়ে কিছুই বলা হয়নি। খালেদা জিয়া গত শনিবার থেকে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের তার দল সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছেন। ইতোমধ্যে তিনি নির্বাচনী প্রচারে নেমে প্রতিনিধি বাধার সম্মুখীন হচ্ছে। এমনকি তার গাড়িবহরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করাও হয়েছে। এরপর খালেদা জিয়া অব্যাহতভাবে নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছেন। তবে তার গাড়িবহর নিয়ে নির্বাচনী প্রচারের কারণে রাস্ত বন্ধ থাকায় জনগণের দুর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে। যা নির্বাচনের আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে খালেদা জিয়াকে আচরণবিধি মেনে প্রচার চালানো কথা চিঠিতে বলা হলেও চিঠিতে খালেদা জিয়াকে দেয়া হয়নি। রিটার্নিং কর্মকর্তার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে প্রার্থীর পক্ষ হয়ে তিনি নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছেন সেই প্রার্থীকে চিঠি দেয়া হয়েছে। তবে খালেদা জিয়ার প্রচার চালাতে কোন বাধাও নেই। কিন্তু গাড়িবহর নিয়ে বা রাস্তা বন্ধ করে যেন কেউ তার পক্ষে প্রচার না চালান, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে মির্জা আব্বাসকে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী কোন প্রার্থী বা তার পক্ষে অন্য কোন ব্যক্তি রাস্তা বন্ধ করে জনগণের অসুবিধা হয়, এমন কোন ধরনের প্রচার চালাতে পারেন না। এছাড়া বিধিমালা অনুযায়ী, সড়কে প্রার্থী বা প্রার্থীর পক্ষে কোন ব্যক্তি পথসভা করতেও পারেন না বা প্রচারের উদ্দেশ্যে কোন মঞ্চও তৈরি করতে পারবেন না।

আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে, অনধিক ছয় মাসের জেল বা ৫০ হাজার টাকার জরিমানা বা উভয়দ-ে দ-িত করার বিধান রয়েছে। এছাড়া একই কারণে কোন প্রার্থীর প্রার্থিতাও বাতিল করতে পারে নির্বাচন কমিশন।