২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্লাটারের বিরুদ্ধে প্রচারে ম্যারাডোনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফিফা প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটারকে কখনই পছন্দ করেন না দিয়াগো ম্যারাডোনা। সর্বকালের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার সুযোগ পেলেই ধুয়ে দেন সুইস কর্তাকে। আসন্ন ফিফা নির্বাচন সামনে রেখে আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বর আরেকবার ব্লাটারের সমালোচনায় মেতে উঠেছেন। জর্দানের প্রিন্স আলী বিন আল হুসেইনের পক্ষে প্রচারে অংশ নিয়ে অনেক কথা বলেন ৫৪ বছর বয়সী ম্যারাডোনা। ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক জর্দান থেকে বলেছেন, ৭৯ বছরের বিতর্কিত ব্যক্তি ব্লাটার প্রেসিডেন্ট পদে থাকাকালীন ফুটবলে অরাজকতা সৃষ্টি হয়েছে। এখন ব্লাটারের চলে যাওয়ার সময় এসেছে।

এবারের নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীর তালিকায় আছেন প্রিন্স আলী। ব্লাটারকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে জর্দানিয়ান এ ধনকুবকে সমর্থন জানানোর কথাও জানান ম্যারাডোনা। সাক্ষাতকারে ম্যারাডোনা বলেন, ফুটবলবিশ্ব জানে ফিফার ভেতরের অবস্থা খুবই খারাপ। সেখানে আসলে একজনের কথাতেই সব চলে। কিংবদন্তি এই তারকা আরও বলেন, ব্লাটারের সময় ফুটবলে অনেক ক্ষতি হয়েছে। এখনই সময় এসেছে তাকে পিছু হটানোর। এখনই সময় পরিবর্তনের। প্রিন্স আলীর প্রশংসা করে ম্যারাডোনা বলেন, যদি নির্বাচত হয় তাহলে প্রিন্স আলী অনেক ভাল প্রেসিডেন্ট হবেন। আমি তাকে দেখতে চাই।

ইতোমধ্যে ফিফা প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচনের জন্য বর্তমান প্রধান সেপ ব্লাটারের প্রতিদ্বন্দ্বীদের নাম চূড়ান্ত হয়েছে। গত ফেব্রুয়ারিতে ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার কার্যনির্বাহী কমিটি চূড়ান্তভাবে মনোনয়ন দিয়েছে চারজনের নাম। এতে ব্লাটারসহ আছেন আরও তিনজন। আগামী ২৯ মে এবারের ফিফা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পঞ্চম মেয়াদে ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রধানের পদে থাকতে হলে ব্লাটারকে পর্তুগালের সাবেক তারকা ফুটবলার লুইস ফিগো, জর্দানের প্রিন্স আলী বিন আল হুসেইন ও ডাচ্ ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনের প্রধান মিশেল ভ্যান প্রাগকে হারাতে হবে। ১৯৯৮ সাল থেকে ফিফার প্রেসিডেন্ট পদে আছেন ব্লাটার। ফিফার এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, চার প্রার্থীর মনোনয়নপত্র নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণের পরে চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আসন্ন ফিফা কংগ্রেসে ২০৫ সদস্য সবচেয়ে বেশি ভোট দিয়ে যাকে মনোনীত করবেন তিনিই হবেন আগামী চার বছরের জন্য ফিফার পরবর্তী সভাপতি। এবার নিয়ে পঞ্চমবারের মতো ফিফার সর্বোচ্চ পদের জন্য লড়াই করতে যাচ্ছেন ব্লাটার।