১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টেস্ট প্রত্যাবর্তনের আরও কাছে মার্টিন গাপটিল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বলা যায় মার্টিন গাপটিলের টেস্ট প্রত্যাবর্তনটা এখন সময়ের ব্যাপার। বিশ্বকাপে দূরন্ত নৈপুণ্যে দুই বছরেরও বেশি সময় পর ডাক পেয়েছেন ইংল্যান্ড সফরের নিউজিল্যান্ড টেস্ট দলে। প্রস্তুতি ম্যাচে চমৎকার ব্যাটিং করে ফেরার দাবিটা আরও জোরালো করেছেন ২৮ বছরের অকল্যান্ড তারকা। বৃহস্পতিবার লর্ডসে শুরু দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট। প্রস্তুতির মতো সিরিজেও ফেরাটা স্মরণীয় করে রাখতে প্রত্যয়ী গাপটিল। তিনি বলেছেন, ব্যাট হাতে কিউইদের হয়ে সাদা পোশাকেও নির্ভরতার প্রতীক হতে চান তিনি।

বিশ্বকাপের গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নেয় কুলিন ইংলিশরা। বিপরীতে ফাইনালে উঠে তাক লাগিয়ে দেয় নিউজিল্যান্ড। কিউইদের ইংল্যান্ড সফর ঘিরে তাই বাড়তি আগ্রহ ক্রিকেটপ্রেমীদের। গাপটিলকে নিয়েও আগ্রহটা কম নয়। বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক কোয়ার্টার ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অপরাজিত ২৩৭ রানের অতিমানবীয় ইনিংস খেলে বদলে দিয়েছেন ৪০ বছরের ইতিহাস। ফর্মের সে ধারা অব্যাহত ইংল্যান্ড সফরে। ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল ইংল্যান্ডে যাওয়ার আগেই কাউন্টি খেলতে সেখানে যান গাপটিল। চার দিনের প্রথম শ্রেণীর ম্যাচে গ্লুস্টারশায়ারের বিপক্ষে ৭ উইকেটের বড় জয়ের পথে ডার্বিশায়ারের হয়ে ক্যারিয়ার সেরা ২২৭ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন তিনি।

এরপর যোগ দেন জাতীয় দলের সঙ্গে। উরচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে চার দিনের ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ৩৫ রান করে আউট হলেও রবিবার তৃতীয় দিনে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করছিলেন ৯৮ রানে। সুতরাং ক্ল্যাসিক্যাল ওপেনারের টেস্ট প্রত্যাবর্তন আক্ষরিকই সময়ের ব্যাপার। ২০০৯ সালের শুরুর দিকে টেস্ট, ওয়ানডে, টি২০ তিন ঘরানার ক্রিকেট দিয়ে একসঙ্গে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আবির্ভাব। তবে ফর্মহীনতায় টেস্টে ছন্দপতন ঘটে। লিডসে ২০১৩ সালের মে মাসে সর্বশেষ খেলেছেন সাদা পোশাকে। ৩১ টেস্টে ২ সেঞ্চুরির সাহায্যে করেছেন ১৭১৮ রান। অথচ একই সময়ে ১০৮ ওয়ানডেতে ৭ সেঞ্চুরি ও ২২ হাফ সেঞ্চুরির সাহায্যে রান ৩৭৩৯।

প্রত্যাবর্তনে আশাবাদী গাপটিল এবার জ্বলে উঠতে চান সাদা পোশাকে। টেস্টেও দলের নির্ভরযোগ্য পারফর্মার হতে আত্মবিশ্বাসী ডানহাতি স্টাইলিশ ব্যাটসম্যান বলেন, ‘আমি মনে করি, ইংল্যান্ডে সফল হতে এখানকার আবহাওয়ায় প্রস্তুতিটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ধন্যবাদ ডার্বিশায়ারকে তারা আমাকে সেই সুযোগটা দিয়েছে। ব্যাট হাতে এখানে সময়টা দারুণ কাটছে। আমি খুবই আত্মবিশ্বাসী। ফর্মের এ ধারা বয়ে নিতে চাই। আমার লক্ষ্য টেস্ট দলে ফেরা এবং নিউজিল্যান্ডের হয়ে অবদান রাখা।’ কিউই টেস্ট দলে প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন পেসার ম্যাট হেনরি ও বাঁহাতি স্পিনার মিচেল স্যান্টনার।