১৬ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিটি নির্বাচন নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করবেন না: টিআইবিকে হানিফ

অনলাইন ডেস্ক॥ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ’র (টিআইবি) উদ্দেশ্যে বলেছেন, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে অহেতুক বিতর্ক সৃষ্টি করে উন্নয়নের পথকে বাধাগ্রস্ত করবেন না।

তিনি বলেন, ‘যারা বলছেন, সিটি নির্বাচন অবাধ হয়নি। প্রমাণ করুন কীভাবে নির্বাচন অবাধ হয়নি। নির্বাচনের ব্যয় কীভাবে বেড়েছে। এই নির্বাচনের আগে কোন স্থানীয় নির্বাচন এর চেয়ে ভালো হয়েছে, দেখান।’

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে জাতীয় শ্রমিক লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহামুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম, আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরি সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, অতীতে বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন তারা কেন্দ্র দখল করে জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত ভোট প্রদানের সুযোগকে বিরত রেখে নিজেদের প্রার্থীকে বিজয়ী করেছে। এবারের নির্বাচনে তা হয়নি। তারপরও বিএনপিপন্থি সুশীলরা বলেন- এ নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর পরও বিভিন্ন ওয়ার্ডে বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। এতে প্রমাণ হয় নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে।

বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সময় এসেছে বেগম খালেদা জিয়া এবং তার পুত্রের দল থেকে পদত্যাগ করা এবং বিএনপির মত একটি দলকে রক্ষা করা। দেশের স্বার্থে এ রকম নেতৃত্বের প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করে তাদেরকে পদত্যাগে বাধ্য করুন। জনগণের কাতারে এসে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখুন।

মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে অনেক দিয়েছেন। এবার তাকে আমাদের দেওয়ার পালা। খালেদা জিয়ার বিজয় হলো মুক্তিযোদ্ধাদের রক্তে ভেজা পতাকা রাজাকারের গাড়িতে তুলে দেওয়া। এর জন্য জনগণ খালেদা জিয়ার বিচার করবে। তথ্যসূত্র: বাসস।