১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভারতের অন্ধ্র ও তেলেঙ্গানায় দাবদাহে প্রাণহানি ৫৩২

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ভারতের অন্ধ্র ও তেলেঙ্গানা রাজ্যে দাবদাহে এ পর্যন্ত ৫৩২ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এর মধ্যে অন্ধ্র প্রদেশে ৩৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের ৪২ জন মারা গেছে হিটস্ট্রোকে। তেলেঙ্গানায় প্রাণহানি হয়েছে ১৯৯ জনের। ভারতের অন্যান্য অংশেও রেকর্ড তাপমাত্রা বিরাজ করছে। এ দুই রাজ্যে আরও দুইদিন তীব্র দাবদাহ চলতে পারে বলে জানায় আবহাওয়া অধিদফতর। খবর এনডিটিভি অনলাইনের।

অন্ধ্র প্রদেশের সরকার প্রথমবারের মতো দাবদাহে প্রাণহানির কথা স্বীকার করেছে। রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী কামিনেনি শ্রীনিবাস বলেন, রবিবার হিটস্ট্রোকে ৬২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে বেসরকারী একটি সূত্র জানায়, অন্ধ্র প্রদেশে ৯৩ ও তেলেঙ্গানা রাজ্যে ৭২ জনের প্রাণহানি হয়েছে। অন্ধ্র প্রদেশের মছলিপত্তনম ও টুনিতে সর্বোচ্চ ৪৭ ডিগ্রী তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। উত্তর প্রদেশের বিভিন্ন নগরীতে গত পাঁচ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ গরম ছিল রবিবার। উড়িষ্যার নয় নগরীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রীর ওপরে রেকর্ড করা হয়েছে। মধ্য প্রদেশের সবচেয়ে উঁচু ভূমি পাঁচমারহির তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ১০ ডিগ্রী বেশি হয়ে ৪০ ডিগ্রী হয়েছে।

উত্তর প্রদেশের রাজধানী লক্ষেèৗতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৭ দশমিক ৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। বান্দায় ৪৬ দশমিক ৬ ডিগ্রী, সুলতানপুরে ৪৬ এবং বারানসি, আগ্রা ও বেরিলিতে ৪৫ দশমিক ৫ ডিগ্রী তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। আবহাওয়া দফতর সোম ও মঙ্গলবারও দাবদাহ অব্যাহত থাকার সতর্কবাণী করেছে।

মধ্য প্রদেশের আন্তর্জাতিক পর্যটন কেন্দ্র খাজুরাহোতে তাপমাত্রা ৪৭ ডিগ্রী ছুঁয়েছে। গত সপ্তাহে এখানে তাপমাত্রা ছিল ৪৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস।