২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রেমিকের বাড়িতে দীর্ঘ অবস্থান, অবশেষে বিয়ে...

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে টানা ২০ দিন অবস্থানের পর অবশেষে বিয়ে হলো প্রেমিকার। রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার আদিবাসী (সাঁওতাল) কলেজছাত্রীকে বিয়ে করতে বাধ্য হয় প্রেমিক। গত ২০ দিন ধরে পালিয়ে ছিল প্রেমিকও। অবেশেষে রবিবার প্রেমিক প্রশান্তর সঙ্গে তার বিয়ে রেজিস্ট্রি হয়। এর আগে গত শুক্রবার সাঁওতাল ধর্মীয় প্রথা অনুযায়ী তাদের বিয়ে সম্পন্ন করা হয়। উপজেলার চম্পকনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গোদাগাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এসএম আবু ফরহাদ বলেন, শুক্রবার বিয়ে হলেও রবিবার তা রেজিস্ট্রি করা হয়। প্রেমিকের বাড়িতে দীর্ঘ অবস্থানের ঘটনা জানার পর পুলিশের পক্ষ থেকে প্রশান্তকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে পরিবারকে চাপ দেয়া হয়। নিজেকে বাঁচাতে গা ঢাকা দিলেও পরিবারের কথায় অবশেষে শুক্রবার বিকেলে প্রশান্ত বাড়ি ফিরে। এ সময় গ্রাম্য সালিশ বসানো হয়। সালিশ শেষে ওই দিন রাতেই প্রশান্তর সঙ্গে অনশনরত কলেজছাত্রীর বিয়ে দেয়া হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য খোরশেদ আলম বলেন, গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের ভাজনপুর গ্রামের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের আদিবাসী ছাত্রীর (২১) সঙ্গে পাশের চম্পকনগর গ্রামের বিষ্ট পদের ছেলে প্রশান্ত পদের (২৫) প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এরপর থেকে ক্রমেই তারা ঘনিষ্ট হয়ে উঠে। এক পর্যায়ে ছাত্রীটি অন্তঃসত্তা হয়ে পড়লে বিয়ের জন্য চাপ দিলে, প্রেমিক প্রশান্ত সব অস্বীকার করে। এরপর গত ১২ মে দুপুরে প্রেমিক প্রশান্তর বাড়িতে হাজির হন এবং বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করেন প্রেমিকা।

নির্বাচিত সংবাদ