২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কারবালায় সমাহিত হলেন বাচ্চু

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সারাটা জীবন থেকেছেন ফুটবল নিয়ে। এ জন্য চিরকুমার থাকতে আপত্তি ছিল না যার, সেই সিরাজুল ইসলাম বাচ্চু রবিবার বিকেলে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সদস্য এবং মহিলা ফুটবলের চেয়ারম্যান সবার প্রিয় ‘বাচ্চু ভাই’ ছিলেন যশোরের সন্তান। দীর্ঘদিন তিনি কিডনিজনিত রোগে ভুগছিলেন। বাচ্চুর শেষ ঠিকানা হয়েছে যশোরে কারবালা কবরস্থানে।

নিজ গ্রামের বাড়ি যশোরে নেয়ার আগে বাচ্চুকে প্রথমে ঢাকার ওয়ারী ক্লাবে এবং তারপর বাফুফে ভবনে নেয়া হয়। উভয় স্থানেই তার জানাজা হয়। বাফুফে ভবনে অনুষ্ঠিত জানাজায় উপস্থিত ছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন, সহ-সভাপতি বাদল রায়, তাবিথ আউয়াল, সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ, মহিলা ফুটবল কমিটির ডেপুটি চেয়ারপার্সন মাহফুজা আক্তার কিরণ, সদস্য হারুনুর রশীদ, বিজন বড়ুয়া, ফজলুর রহমান বাবুল, শেখ মোঃ মারুফ হাসান, প্রিমিয়ার লীগের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের কোচ কাজী জসিমউদ্দিন জোসি, জনসংযোগ কর্মকর্তা আহসান আহমেদ অমিত, ব্রাদার্স ইউনিয়নের ম্যানেজার আমের খান এবং জাতীয় ফুটবল দলের বর্তমান ও সাবেক ফুটবলারসহ সমাজের সর্বস্তরের অনেক ফুটবল অনুরাগী।

সোমবার সকালে যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে মরহুমকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। জোহর বাদ শহরের ঈদগাহে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়। বাচ্চুর মৃত্যুতে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব কবির, সৌখিন ক্রীড়া চক্রের সাধারণ সম্পাদক এবিএম আখতারুজ্জামান, সাবেক ফুটবলার, মাসুদুর রহমান টনি, জয়নাল আবেদীন, লাবু জোয়ার্দার, হালিম রেজা, মান্না দে লিটু, হারান চন্দ্র দে, তপন স্মৃতি সংসদ, ঈদগাহ কোচিং সেন্টার, বিপ্লব শহীদ স্মৃতি সংসদের কর্মকর্তারা।

নির্বাচিত সংবাদ