২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কোপা জয়ে দৃষ্টি মেসি ও নেইমারের

কোপা জয়ে দৃষ্টি মেসি ও নেইমারের
  • পর্দা উঠল দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের আসরের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বের সবচেয়ে পুরনো আন্তর্জাতিক ফুটবল আসর কোপা আমেরিকা। চিলিতে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের এই আসরের পর্দা উঠেছে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার ভোরে। উদ্বোধনী ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে স্বাগতিক চিলি ও ইকুয়েডর। ফুটবলের অন্যতম সেরা এই আসরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় দুই দল ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনাও। দক্ষিণ আমেরিকার ১০ দেশের সঙ্গে মেক্সিকো ও জ্যামাইকাকে নিয়ে আয়োজিত এ টুর্নামেন্টে লিওনেল মেসি ও নেইমারের দিকে তাকিয়ে আছে যথাক্রমে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল। এই দুই তারকাই লাতিন ফুটবলে শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পরার প্রত্যয়ের কথা জানিয়েছেন।

বার্সিলোনার দুই তারকার পারফর্মেন্সের ওপর অনেকাংশে নির্ভর করছে দেশ দুটির সাফল্য। তবে সময়ের অন্যতম সফল দুই তারকার সাফল্য নিয়ে বেশ সন্দিহান সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার কিংবদন্তি পেলে। কিছুদিন আগে চিলির রাজধানী সান্টিয়াগোতে ঘরহারাদের সাহায্যার্থে এক প্রচারে অংশ নেয়ার সময় চ্যালেঞ্জের সুরে কথাগুলো বলেছেন ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি। পেলের মতে, মেসি-নেইমারের সাফল্য পাওয়া কঠিন হবে কোপা আমেরিকা ফুটবলে! মেসি ও নেইমারের প্রতিভা নিয়ে পেলের মনে কোন সন্দেহ নেই। তবে ব্রাজিলের ফুটবল কিংবদন্তি কোপা আমেরিকায় এ দুজনের সাফল্য নিয়ে সন্দিহান। সাক্ষাতকারে পেলে বলেন, সে (মেসি) স্পেনের বার্সিলোনায় পরিচিত দলের হয়ে খেলে। তখন সে ভালমতোই জানে, তার কাছ থেকে কী চাওয়া হচ্ছে। কিন্তু মেসি আর্জেন্টাইন দলের হয়ে খেলার সময় বিষয়টা একই রকম থাকে না। তখন তার খেলার ধরন পাল্টে ফেলতে হয়। আর্জেন্টিনা দল বার্সিলোনার মতো সংঘটিত নয়। নেইমার আর ব্রাজিলের ক্ষেত্রেও ঠিক একই ঘটনা ঘটে। অবশ্য পেলের বিশ্বাস, মেসি-নেইমারের জন্যই কোপা আমেরিকার আকর্ষণ অনেক বেড়ে যাবে এবার। এ প্রসঙ্গে তার মতমত, বর্তমান সময়ে একটা দলের চেয়ে একজন খেলোয়াড়ের পরিচিতিই যেন বেশি। তাই সন্দেহ নেই, এটা হতে যাচ্ছে তারকাসমৃদ্ধ কোপা। ক্লাব ফুটবলে সাফল্যের পরশে থাকলেও জাতীয় দল আর্জেন্টিনার হয়ে বলার মতো কিছুই জিততে পারেননি মেসি। বার্সিলোনার এই সুপারস্টার সদ্যই ক্লাবের হয়ে রেকর্ড চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ট্রফি জিতেছেন। এবার মিশন দেশের জার্সি গায়ে কোপা আমেরিকা ফুটবল। পেলে আশাবাদী না হলেও আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন, কোপা আমেরিকার শিরোপা উপহার দিতে চান দেশবাসীকে। কোপা আমেরিকাতে দারুণ সফল আর্জেন্টিনা।

এ পর্যন্ত দলটি ১৪ বার শিরোপা জিতেছে। তবে ১৯৯৩ সালের পর এই আসরে আর সাফল্য পায়নি ম্যারাডোনা, মেসির দেশ। ১৯৯২ সালে আর্জেন্টিনা একমাত্র ফিফা কনফেডারেশন্স কাপ জয় করে। এছাড়া ২০০৪ এথেন্স ও ২০০৮ বেজিং অলিম্পিকের ফুটবলেও স্বর্ণপদক জেতে আর্জেন্টিনা। কিন্তু গত ২২ বছরে কোন আন্তর্জাতিক শিরোপা জিততে না পারার হতাশা আছে দিয়াগো ম্যারাডোনার দেশের। এবার সেই বন্ধ্যত্ব ঘোচাতে চান মেসি। সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে বার্সার হয়ে ট্রেবল জেতা মেসি সাক্ষাতকারে বলেন, এই বছর আমাদের লক্ষ্য চ্যাম্পিয়ন হওয়া। আর্জেন্টিনার জার্সিতে খেলাটা দারুণ উপভোগ করেন মেসি। তবে একবার শিরোপা জিতলে বিষয়টা আরও দারুণ হবে বলে মনে করেন তিনি। এ প্রসঙ্গে চারবারের ফিফা সেরা তারকার মতামত, জাতীয় দলের হয়ে খেলাটা আমার কাছে দারুণ এক বিষয়। তবে একবার শিরোপা জিতলে বিষয়টা আরও দারুণ হবে। মেসি বলেন, দলের জন্য ভাল খেলে শিরোপা জেতা আমাদের দায়িত্ব হয়ে গেছে। অনেক বছর ধরে আর্জেন্টিনা কোন কিছু জেতেনি। সুতরাং আমাদের কোপা আমেরিকা জিততেই হবে। তিনি আরও বলেন, আমরা আমাদের ক্যারিয়ারের বিশেষ ক্ষণে অবস্থান করছি। আমরা একটি বিশ্বকাপ থেকে ফিরেছি, যেখানে বড় সাফল্যের খুব কাছাকাছি ছিলাম আমরা। আর সেটা আমাদের ভাল খেলার তাড়না দেবে। সামনের প্রতিযোগিতাগুলোয় আমাদের সাহসও যোগাবে। বর্তমান প্রজন্ম দেশবাসীকে শিরোপা উপহার দেয়ার জন্য মুখিয়ে আছে। মেসির মতো নেইমারেরও অভিন্ন লক্ষ্য।

তারকা এই ফরোয়ার্ড জানিয়েছেন, ব্রাজিলের কাছে শিরোপা ছাড়া অন্য কিছুই ব্যর্থতা। আমরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই খেলব। আমাদের দলটা দারুণ। আশা করছি বিশ্বকাপের ব্যর্থতা ঘোচাতে পারব। সেলেসাও কোচ কার্লোস দুঙ্গাও আশাবাদী তার দল ও অধিনায়ক নেইমারকে নিয়ে।