২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দামুড়হুদায় ৩১ প্রাথমিক বিদ্যালয় চলছে প্রধান শিক্ষক ছাড়াই

সংবাদদাতা, দামুড়হুদা, চুয়াডাঙ্গা, ২৬ জুন ॥ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ৩১টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক ছাড়াই চলছে। ফলে এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান ও প্রশাসনিক কার্যক্রমে ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। সহকারী শিক্ষকরাই সব কাজ করছেন। অভিভাবকদের দাবি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোয় প্রধান শিক্ষক না থাকায় উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রমে স্থবিরতা এসেছে। তারা মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে দ্রুত এসব প্রতিষ্ঠানে প্রধান শিক্ষক পদ পূরণের দাবি জানান।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের তথ্যনুযায়ী, দামুড়হুদায় মোট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ১১৫টি। এই ১১৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৩১টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নেই। সব প্রতিষ্ঠান মিলিয়ে প্রায় ৫০ হাজার ৬৭৫ শিক্ষার্থী রয়েছে, যার মধ্যে প্রতি বছর বিভিন্ন কারণে ৬ শতাংশ শিক্ষার্থী ঝরে পড়ছে। দামুড়হুুদা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নুরজাহান জানান, উপজেলার বাঘাডাঙ্গা, মজলিসপুর, চাকুলিয়া, ফুলবাড়ী, হাতিভাঙ্গা, পীরপুরকরুল্লা, দলিয়াপুর, হেমায়েতপুর, মুন্সীপুর, বুইচিতলা, সদাবরী, ধান্যঘরা, কুড়ুলুগাছি, ছুটিপুর, নাটুদাহ, রঘুনাথপুর, ছাতিয়ানতলা, বয়রা, চারুলিয়া, বোয়ালমারী, পোতারপাড়া, কুড়ুলগাছী মাঠপাড়া, পরানপুর, কালিয়াবকরী বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নেই। উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তা জানান, চার মাস আগে উপজেলার আওতাধীন প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোয় প্রধান শিক্ষকের শূন্যপদ পূরণের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আবেদন করা হয়েছে। তবে এখনো এ প্রশ্নে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কোন চিঠি পাওয়া যায়নি।