১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নওগাঁয় সেপটিক ট্যাংকের শাটারিং খুলতে গিয়ে চারজনের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ, ৭ জুলাই ॥ মঙ্গলবার সকালে নওগাঁ সদর উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নের গোয়ালী গ্রামের তয়েজ উদ্দিন প্রামানিকের বাড়ির নির্মাণাধীন সেপটিক ট্যাংকের শাটারিং খুলতে নেমে তার ছেলে কলেজ ছাত্র ইমতিয়াজ(২৪) আলমসহ ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিন সকাল ৭ টার দিকে ওই সেপটিক ট্যাংকের শাটারিংয়ের বাঁশ খুলতে নিচে নামে পার্শ্ববর্তী রঘুনাথপুর গ্রামের রতন মিস্ত্রি (৩৫)। তাকে সহযোগিতার জন্য বাড়ির মালিকের ছেলে ইমতিয়াজ ট্যাংকের ভেতর নামে। পরে তাদের কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে অপর মিস্ত্রি বাবু সরদার (৩৫) ও দেলবর আলী (৪৫) সেফ্্টিক ট্যাংকের ভেতর নামলে সকলেই বিষাক্ত গ্যাসে আক্রান্ত হয়। কিন্তু অনেকক্ষণ তাদের কারও কোন সাড়া না পেয়ে সবাই উৎকণ্ঠিত হয়ে পড়েন। এরই মধ্যে সেখানে শত শত মানুষের উপস্থিতি বেড়ে যায়। এলাকাবাসী সমবেত হয়ে সেপটিক ট্যাংকের ছাদ ভেঙ্গে তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে ইমতিয়াজ উদ্দিন, রতন মিস্ত্রি ও বাবু সরদারকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। এর কিছুক্ষণ পরে দেলবরকে হাসপাতালে নেয়ার পথে সেও মারা যায়। মৃতদের বাড়ি নওগাঁ সদর উপজেলার গোয়ালী গ্রামে। খবর পেয়ে নওগাঁ সদর মডেল থানার পুলিশ হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। নওগাঁ সদর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার কানাই লাল সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে।