২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজধানীতে মাঝারি বর্ষণ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দিনভর তপ্ত রোদ। গরমে অতীষ্ঠ হয়ে ওঠে রাজধানীবাসী। রাত সাড়ে আটটার পর নগরীতে নেমে আসে মাঝারি ধরনের বর্ষণ। বৃষ্টির পাশাপাশি চলতে থাকে বিদ্যুত চমকানি। বৃষ্টিতে প্রশান্তি পেলেও সাময়িক দুর্ভোগে পড়ে নগরবাসী। পথে আটকা পড়ে অনেক ঘরে ফেরা মানুষ। আগামী দুদিনের মধ্যে দেশে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা আরও বৃদ্ধি পাবে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, মৌসুমী বায়ুর বর্ধিতাংশের অক্ষ পাঞ্জাব,হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ,বিহার, হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে অসম পর্যন্ত বিস্তৃত। এর একটির বর্ধিতাংশ উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি থেকে দুর্বল অবস্থায় রয়েছে। আজ বুধবার ঢাকা, রাজশাহী,রংপুর, খুলনা ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতর আরও জানায়, গত দুদিন ধরে রাজধানীসহ দেশের অধিকাংশ জেলার তাপমাত্রা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। মঙ্গলবারও দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যশোরে ৩৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন সিলেটে ২৫.৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড হয়। আর রাজধানীর সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয় যথাক্রমে ৩৫.৫ ও ২৮.৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস। আরও দু’একদিন তাপমাত্রা বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলেই দেশে তাপপ্রবাহ বয়ে যাবে। দেশের প্রায় সব জেলার সর্বনিম্ন ২৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ ডিগ্রী সেলসিয়াসের ওপর অবস্থান করে।

সূত্রটি আরও জানায়, জুলাইয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টিপাত হতে পারে। বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি মৌসুমী নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে । জুলাইয়ে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত ঢাকা বিভাগে ৩৭৯ মিলিমিটার, চট্টগ্রামে ৭২০ মিমি, সিলেটে ৫৭৯ মিমি, রাজশাহীতে ৩৫৪ মিমি, রংপুরে ৪১৬ মিমি, খুলনায় ৩৪১ মিমি ও বরিশালে ৫১৯ মিলিমিটার হতে পারে।