২১ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আদালতে যাচ্ছে নিষিদ্ধ চেন্নাই ও রাজস্থান

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এন শ্রীনিবাসন এ্যান্ড গং- যে কতটা শক্তিধর, বিশ্ব এরই মধ্যে তা দেখেছে। সব ধরনের নিয়ম-কানুনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে দিনকে রাত আর রাতকে দিন করতে সিদ্ধহস্ত ক্রিকেটের এই ‘ডাইনোসর’রা। সুতরাং নিষিদ্ধ হলেও সহজে ছেড়ে দেয়ার পাত্র নন গুরুনাথ মায়াপ্পন ও রাজ কুন্দ্রা। ফিক্সিং কলঙ্কের দায়ে ভারতীয় সুপ্রীমকোর্টের রায়ে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (আইপিএল) দল চেন্নাই সুপার কিংস ও রাজস্থান রয়্যালস। চেন্নাইয়ের মালিক মায়াপ্পান শ্রীনির জামাতা, আর রাজস্থানের মালিকপক্ষের অন্যতম কুন্দ্রা বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠীর স্বামী। তাই নেপথ্যে থেকে শ্রীনিদের সর্বোচ্চ বাহুবল দেখানোটা হয়ত এখনও বাকি! নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে নতুন করে আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তৃপক্ষ।

চেন্নাইয়ের সিইও কাশী বিশ্বনাথ বলেন, ‘সুপ্রীমকোর্টের রায়ে অবশ্যই সম্মান রয়েছে, তবে আমাদের সামনে আদালতে যাওয়ার রাস্তা থাকছে।’ পাশাপাশি দল বিক্রির সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘ফ্রাঞ্চাইজি মোটেও বিক্রির জন্য নয়। বিক্রি করার কোন ভাবনাই আমাদের নেই। আমরা দল বিক্রি করব কেন? আমাদের তো একেবারে বাতিল করে দেয়া হয়নি। কেবল দুই বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। সিদ্ধান্তটা আমরা আদালতে আবার চ্যালেঞ্জ করতে পারি।’ অপর দল রাজস্থানের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা সুপ্রীমকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায়ের অপেক্ষায়। রিপোর্ট দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত। কিন্তু স্থানীয় বিশ্লেষকদের মতে, চেন্নাইর পথেই হাঁটবে রাজস্থান। রবি বা সোমবার ইন্ডিয়ান বোর্ডের (বিসিসিআই) বিশেষ সভা বসতে যাচ্ছে, শোনা যাচ্ছে আইপিএলের পরবর্তী আসরে দুটি নতুন দল নিয়ে সেখানে আলোচনা হতে পারে।

ওদিকে চেন্নাই ও রাজস্থানের সব তারকা ক্রিকেটারদের জন্য নতুন নিলামের সিদ্ধান্তও হতে পারে। উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে আইপিএল চালু হওয়ার পর এ পর্যন্ত আট আসরের সব চেন্নাইর হয়ে খেলেছেন ভারত জাতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। যিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন, অবসরের আগ পর্যন্ত একই দলে খেলে যাবেন; দুই দলে আছেন সুরেশ রায়না, রবিন্দ্র জাদেজা, রাজস্থানে অজিঙ্কা রাহানে-স্টিভেন স্মিথদের মতো তারকা ক্রিকেটার। তাহলে ধোনি কি আইপিএল থেকে নিজেকে সরিয়ে নেবেন? গ্রেট সুনিল গাভাস্কারের মতে, ধোনিকে ছাড়া আইপিএল কল্পনাই করা যায় না। আইপিএল গবর্নিং কাউন্সিলের এক সদস্যের বক্তব্য, ‘খুব শীঘ্রই কাউন্সিলের জরুরী বৈঠক। সেখানেই দুই ফ্রাঞ্চাইজি ও খেলোয়াড়দের ভবিষ্যত নিয়ে আলোচনা হবে। হয়ত নতুন দল পেতে নিলামের সুযোগ পাবেন ক্রিকেটাররা।’

ধোনি, রায়না, জাদেজা, রাহানে, স্মিথরা হয়ত নিলামে অনায়াসে দল পাবেন, কিন্তু স্থানীয় নবীন প্রতিভাবনদের কি হবে, সেটিও বড় প্রশ্ন। পরিস্থিতি যতই ঘোলাটে হোক, সাবেক বিচারপতি রঙ্গন মাদুগলে কিন্তু খুশি। ‘শাস্তিটা কঠিন হয়েছে। কিন্তু এমনটাই হওয়া উচিত। দল না থাকায় ক্রিকেটারদের ক্ষতি হবে। ক্রিকেট কলঙ্ক মুক্ত করাও বড় ব্যাপার।’ ২০১৩ ষষ্ঠ আইপিএলে ফিক্সিংয়ে জড়িয়ে পড়েন খোদ চেন্নাই ও রাজস্থান মালিক। লোধা কামিটির বিচারে দুটি দল দুই বছরের জন্য এবং দুই মালিক আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ হন। আইপিএল ফিক্সিং রায়ের একদিনের ব্যবধানে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ টি২০ বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দিল লীগটির গবর্নিং কাউন্সিল! যদিও কারণ হিসেবে দর্শকের অভাব ও জনপ্রিয়তার প্রসঙ্গ তুলে ধরা হয়েছে।

বিসিসিআই সচিব অনুরাগ ঠাকুর বলেন, ‘চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ২০ মোটেই দর্শক টানতে পারছে না। রয়েছে স্পন্সর সমস্যা। তাই এটি বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।’ এটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত বলে উল্লেখ করেন তিনি। মূলত দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতীয় বোর্ডের তত্ত্বাবধানে ২০০৮-১৪ পর্যন্ত সাতবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০০৮-এ মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলার জন্য টুর্নামেন্ট পরিত্যক্ত হয়েছিল। ২০১৪-এ শেষ আসরের চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ টি২০ হওয়ার কথা ছিল।