২২ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পরিবারের সান্নিধ্যে মেসি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুঃসময়ে পরিবারের সান্নিধ্যে আছেন লিওনেল মেসি। চিলির কাছে ফাইনালে হেরে কোপা আমেরিকার শিরোপা খোয়ানোর পর থেকে সমালোচনায় বিদ্ধ আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। যে কারণে এখনও তিনি যোগ দেননি বার্সিলোনার অনুশীলনে। ইতোমধ্যে বার্সা কোচ লুইস এনরিকে তার শিষ্যদের নিয়ে অনুশীলন শুরু করেছেন। কিন্তু প্রাণভোমরা মেসি ছুটি কাটাচ্ছেন। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ক্যারিবীয়া অঞ্চলে বেড়াতে গেছেন সাবেক রেকর্ড টানা চারবারের ফিফা সেরা ফুটবলার। বেড়াতে গিয়ে মেসি তার ছেলেবেলার ক্লাব নিউওয়েলস ওল্ড বয়েজ ক্লাবের প্রতি ভালবাসার বহির্প্রকাশ ঘটিয়েছেন। যার প্রমাণ মিলেছে ছেলে থিয়াগোকে নিউওয়েলস ওল্ড বয়েজের জার্সি পরানোর মধ্য দিয়ে। ছেলেকে জার্সি পরিয়ে ঘুরতে বের হন তিনি। পরে থিয়াগোর সঙ্গে ছবি তুলে ইনস্টাগ্রামেও দিয়েছেন মেসি। বাপ-বেটার ছবি দেখে ভক্ত-সমর্থকরা লাইকের বন্যা বইয়ে দিচ্ছেন।

ক্যাসিয়াস মানুষ হিসেবে অনন্য ॥ জাভি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ স্প্যানিশ পরাশক্তি রিয়াল মাদ্রিদে বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের ইতি টেনে পর্তুগালের এফসি পোর্তোতে নাম লিখিয়েছেন ইকার ক্যাসিয়াস। সেই থেকে বিভিন্নজন স্পেন অধিনায়ককে নিয়ে মন্তব্য করে চলেছেন। তাকে শুভকামনা জানিয়েছেন। বার্সিলোনা থেকে ক্যারিয়ার গুটিয়ে কাতারে পাড়ি জমানো জাভি হার্নান্দেজও কষ্ট পেয়েছেন ক্যাসিয়াসের বার্নাব্যু ছাড়ার খবরে। এক সাক্ষাতকারে জাভি জানিয়েছেন, ক্যাসিয়াস ফুটবলার হিসেবে যেমন দুর্দান্ত, তেমনি মানুষ হিসেবেও অসাধারণ। ক্যাসিয়াস প্রসঙ্গে জাভি বলেন, ১৯৯৭ সালে মিসরে অনুষ্ঠিত অনুর্ধ ১৭ বিশ্বকাপের সময় ক্যাসিয়াসের সঙ্গে আমার প্রথম পরিচয়। এরপর থেকে তার সম্পর্কে কেউ জানতে চাইলেই আমি বলতাম, সে সত্যিই খুব ভাল মানুষ। বার্সার কিংবদন্তি তারকা আরও বলেন, আশা করছি, পোর্তোতে সে উষ্ণ অভ্যর্থনা পাবে। আমার কাছে ক্যাসিয়াস ফুটবল ইতিহাসের সেরা গোলরক্ষক। হয় তো তার ফুটওয়ার্কে কিছুটা দুর্বলতা আছে। কিন্তু গোলপোস্টের নিচে তার মতো এমন দৃঢ়তা অন্যদের মাঝে দেখিনি। রিয়াল ও স্পেন জাতীয় দলের কাছে সে কিংবদন্তি হয়েই থাকবে। ২০১৫ সালে বার্সিলোনা ছেড়ে কাতারের আল সাদে নাম লেখানো জাভি বলেন, ক্যাসিয়াস যেভাবে রিয়াল ছেড়েছে তাতে আমি মর্মামত। এটা আমাকে ভীষণভাবে কষ্ট দিয়েছে। তবে আশা করছি বন্ধু, পোর্তোতে তোমার সময়টা ভাল কাটবে। তোমার জন্য শুভকামনা রইল।

পাকিস্তান ২৮৭

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাকিস্তান বলে কথা, ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ দলটির পক্ষে অনেক কিছুই সম্ভব। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে কাল এক পর্যায়ে ১৯৭ রানে শীর্ষ ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে আজহার আলিরা। অথচ শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে সেই তাদেরই সংগ্রহ ৮ উইকেটে ২৮৭!

শেষদিকে অবিশ্বাস্য ব্যাটিং করেছেন মোহাম্মদ রিজোয়ান ও আনোয়ার আলি। ৩৮ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৫২ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন ছয় নম্বরে নামা রিজোয়ান। সপ্তম উইকটে ৬.৩ ওভারে ৬৫ রান যোগ করেন দুজনে। ২০ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৯ রান নিয়ে অপাজিত থাকেন আনোয়ার। পাকিস্তানের বড় জুটিটা অবশ্য গড়ে ওঠে তার আগে। শোয়েব মালিক ও আজহার আলির মধ্যে, চতুর্থ উইকেটে ১৩.২ ওভারে দলের ভা-ারে ৮৩ রান জমা করেন সাবেক ও বর্তমান অধিনায়ক। ২ চার ও ৩ ছক্কায় ৫১ বলে ৫১ রান করে সাজঘরে ফেরেন মালিক। ওপেনার আজহার আলি খেলেন ৭৮ রানের ধৈর্যশীল ইনিংস। ১০৪ বলে ৬ চার মারেন তিনি। শ্রীলঙ্কার হয়ে লাসিথ মালিঙ্গা, সাচিথ পাথিরানা নেন ২টি করে উইকেট।

মোহাম্মদ হাফিজের দুরন্ত অলরাউন্ড নৈপুণ্যে প্রথম ওয়ানডেতে ৬ উইকেটের বিশাল জয় পায় সফরকারী পাকিরা। সিরিজটা তাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে হলে অবশ্যই জিততে হবে আজহার আলিদের! ৩০ সেপ্টেম্বর ‘২০১৫ পর্যন্ত আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ আট দলই কেবল সেখানে খেলতে পারবে। বাংলাদেশের কাছে ‘হোয়াইটওয়াশ’ হওয়া পাকিস্তান এখন ‘নয়’ নম্বরে। আট নম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।