১৮ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঈদ মানেই ছিল মেহেদি দেয়া ॥ নওসাবা

এই সময়ের ব্যস্ত অভিনেত্রী নওসাবা। ঈদ নিয়ে খুব একটা প্লানিং নেই নওসাবার। ঈদের দিনে সকালে ঘুম থেকে উঠে নিজের মতো করে সময়টা কাটাতেই পছন্দ করেন তিনি। মেয়ে প্রকৃতি এবং প্রিয় কুকুর ‘চর্কি’ কে নিয়েই সময় কাটবে তার। চর্কিকে গোসল করিয়ে দেবেন নিজের হাতে। এই কুকুরটি ভীষণ প্রিয় নওসাবার। তিনি যখন অনেক দিন অসুস্থ হয়ে শয্যাশায়ী ছিলেন, তখন এই চর্কি তার পাশ ছেড়ে কোথাও নড়েনি। একমাত্র মেয়ে প্রকৃতিকে ঘিরেই নওসাবার রাত্রিদিন। ঈদের দিন মেয়েকে সুন্দর করে সাজিয়ে দেবেন। নিজের অভিনীত ঈদের নাটকগুলো টিভিতে দেখবেন। অবশ্যই আত্মীয়স্বজনদের বাড়িতে বেড়াতে যাবার পরিকল্পনা রয়েছে। এমনিতেই সারা বছর নাটকের প্রয়োজনে মেকাপ নিয়ে অভিনয় করতে হয়। তাই ঈদের দিন সাজুগুজু খুব একটা পছন্দ করেন না তিনি। সাধারণ পোশাকই পরবেন। ঈদে কোথাও ঘুরতে খুব একটা যাওয়া হয় না এই অভিনেত্রীর। নিজের পরিবারকেই সময় দেবেন তিনি। সারা বছর শূটিংয়ের জন্য নিজের মতো করে সময় কাটানো হয় না। ঈদে সেই সুযোগটা মেলে। ছোটবেলার ঈদের কথা মনে করতে গিয়ে স্মৃতির ঝাঁপি খুলে বসলেন এই অভিনেত্রী। নওসাবার সেনা কর্মকর্তা বাবা নিজের হাতে রাত জেগে মেয়ের হাতে মেহেদী লাগিয়ে দিতেন। কোনভাবেই এর ব্যত্যয় হতো না।

সব সময় আঁকা হতো কলাগাছ এবং ঘর। স্মৃতির ঝাঁপি হাতড়ে নওসাবা ফিরে গেলেন সেই অতীতে, ‘বাবা এত সুন্দর করে মেহেদি লাগিয়ে দিতেন যে আমি অবাক হয়ে দেখতাম। বাইরে থেকে দেখলে বাবাকে খুব রাগী মনে হতো। কিন্তু তিনি আসলে সম্পূর্ণ অন্য মানুষ ছিলেন। এই বড় বেলার ঈদে চাঁদ রাতে বাবার সেই মেহেদি লাগিয়ে দেয়াটা খুব মিস করি। এই ঈদে বাবাকে অনেক বই উপহার দেব। বাবা বই পড়তে খুব ভালোবাসেন।‘ ঈদে নওসাবার বেশ কয়েকটি নাটক ও টেলিফিল্ম প্রচারিত হবে। এর মধ্যে বাংলাভিশনে প্রচারিত হবে সালাউদ্দিন লাভলুর পরিচালনায় ৬ পর্বের নাটক ‘মুকুল মাস্টার’। চ্যানেল আইতে প্রচারিত হবে সম্রাটের পরিচালনায় টেলিফিল্ম ‘খটকা’। এছাড়াও প্রচারিত কবে আমজাদ হোসেনের পরিচালনায় নাটক ‘মেন্টাল জব্বার আলী’ এবং সুজন বড়য়ার নাটক ‘বকুল ফুল’। এতে তার সঙ্গে আছেন অভিনেতা রওনক হাসান। নওসাবা এরই মধ্যে দুটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে একটি হচ্ছে নির্মাতা ওয়াহিদ তারেকের ‘আলগা নগর’ এবং পরিচালক খিজির হায়াত খানের ‘প্রতিরুদ্ধ’। এই বছরের নবেম্বর মাসে মুক্তি পেতে যাচ্ছে চলচ্চিত্র ‘আলগা নগর’। অন্যদিকে ‘প্রতিরুদ্ধের’ বেশ কিছুটা কাজ এখনো বাকি রয়েছে। চলচ্চিত্র দুটি নিয়ে মোটের ওপর ভীষণ উচ্ছ্বসিত নওসাবা।

আনন্দকণ্ঠ ডেস্ক

নির্বাচিত সংবাদ