১৮ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশালে তীররক্ষা বাঁধ সরিয়ে নদী দখল

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ নদীর তীর রক্ষায় সরকারীভাবে দেয়া বাঁধের ব্লক উঠিয়ে নদী দখল করে পাকা ভবন নির্মাণের কাজ অব্যাহত রেখেছেন স্থানীয় প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতারা। নির্মাণ কাজ বন্ধের জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারি করে লাল নিশানা উড়িয়ে দেয়া হলেও দখলদাররা আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে নির্মাণ কাজ অব্যাহত রেখেছে। ফলে স্থানীয় সচেতন মহলের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হলেও প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেন না।

ঘটনাটি জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার পয়সারহাট নদীর তীরবর্তী বাগধা বাজার এলাকার। স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পয়সারহাট নদীর ওপর নির্মিত দক্ষিণাঞ্চলের তৃতীয় বৃহত্তম সেতু সংলগ্ন পূর্ব পাড়ের নদীর একটি অংশে পাইলিং ও ইট বালু দিয়ে ভরাটের মাধ্যমে দখল করে ইট বালুর ব্যবসা শুরু করেছেন স্থানীয় প্রভাবশালী বিএনপি নেতা বাদশা বকতিয়ার। এছাড়া পয়সারহাট বন্দরের এক সংখ্যালঘু পরিবারের জায়গাসহ লঞ্চঘাট থেকে বন্দরে প্রবেশের তীররক্ষা বাঁধের ব্লক সরিয়ে সরকারী জায়গা দখল করে দ্বিতল পাকা ভবন নির্মাণ করছেন স্থানীয় প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা আবুল বাশার হাওলাদার ওরফে বাদশা। একই নদীর (বাগধা হাটের) পূর্ব পাড়ের নদী দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ করছেন প্রভাবশালী কাদের মিয়া, মাওলা মিয়া, আকবর মিয়াসহ তাদের ছয় সহযোগী। সূত্র মতে, নদী দখল করে পাকা ভবন নির্মাণের ঘটনায় অতিসম্প্রতি উপজেলা প্রশাসক নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে ১৪৪ ধারা জারি করে লাল নিশানা উড়িয়ে দেয়।

স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে থানার কতিপয় অসাধু অফিসারকে ম্যানেজের মাধ্যমে অবৈধভাবে ভবন নির্মাণের কাজ অব্যাহত রেখেছে দখলদার প্রভাবশালীরা। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেবী চন্দ বলেন, ঈদের পর পরই দখলদারদের উচ্ছেদের জন্য অভিযান পরিচালনা করা হবে।