১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অতিরিক্ত যাত্রী বহনে ভোলাগামী লঞ্চের তলায় ছিদ্র, যাত্রীদের দুর্ভোগ

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও তলায় ছিদ্র দেখা দেয়ায় ভোলাগামী পারাবত-৫ মুন্সীগঞ্জে আটক করেছে বিআইডব্লিউটিএ। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় ধলেশ্বরী নদী থেকে লঞ্চটি আটক করে মিরকাদিম লঞ্চ ঘাটে নিয়ে যায়। আতঙ্কিত ঘরমুখো যাত্রীরা পড়ে বিড়ম্বনায়। লঞ্চটির পরীক্ষা শেষে অতিরিক্ত ২৫০ যাত্রী বহনের জন্য সদরঘাট থেকে আরেকটি লঞ্চ তলব করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, লঞ্চটিতে পাঁচ শতাধিক যাত্রী নিয়ে সদরঘাট থেকে দুপুর ১টায় ছেড়ে আসে। পথিমধ্যে আরেকটি লঞ্চের সঙ্গে ধাক্কা খেলে লঞ্চের পানির লেভেলের কিছুটা ওপরে তলা ফেটে যায়। এতে যাত্রীরা হৈচৈ শুরু করে। এরপর নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ থেকে লঞ্চটি মেরামত করে ভোলার দিকে যাত্রা শুরু করে। কিন্তু খবর পেয়ে মুন্সীগঞ্জ ধলেশ্বরী নদীতে লঞ্চটি আটক করা হয়।

বিআইডব্লিউটির যুগ্ম পরিচালক গোলাম মোস্তফা জানিয়েছেন, লঞ্চের এক যাত্রী লঞ্চের তলা ফেটে যাওয়ার ঘটনা আমাদের জানালে দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য নৌপুলিশের সহায়তায় লঞ্চটি আটক করেছি। আমাদের বিশেষজ্ঞ দল ফিটনেস পরীক্ষা করে চলাচল উপযোগী মনে করলে গন্তব্যে যাত্রার জন্য অনুমতি দেব। আর চলাচলের অনুপযোগী হলে আমরা ঢাকা থেকে আরেকটি লঞ্চ এনে যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করব।

পরে লঞ্চটি পরিদর্শন করে বিআইডব্লিটিএ’র সমুদ্র পরিবহন অধিদফতরের সার্ভেয়ার মির্জা সাইফুর রহমান জানান, লঞ্চটি ২শ’ ৫০ যাত্রী বহনের উপযোগী। মুক্তারপুর ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই মোঃ মোশারফ হোসেন বেলা ৬টায় জানান, অতিরিক্ত যাত্রীদের বহন করার জন্য পাতারহাট-৪ নামের আরেকটি লঞ্চ সদরঘাট থেকে রওনা হয়েছে। এ লঞ্চটি আসার পরই দুটি লঞ্চ একত্রে ছেড়ে যাবে। রোজার মধ্যে কয়েক ঘণ্টা ধরে যাত্রীদের অপেক্ষার বিড়ম্বনা ছিল দুর্বিষহ।