১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বেতন দিয়েছে ৯৯ ভাগ গার্মেন্টস বোনাস ৯৫ ভাগ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পোশাক শিল্পের প্রায় ৯৯ শতাংশ কারখানায় ঈদের বেতন দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছে বিজিএমইএ। এছাড়া ঈদ বোনাস পরিশোধ করেছে ৯৫ শতাংশ কারখানা। সংগঠনের সভাপতি আতিকুল ইসলাম বলেন, বড় কোন ঝামেলা ছাড়াই এই বেতন-বোনাস দেয়া সম্ভব হয়েছে। এ শিল্পে কাজ করছে বর্তমান ৪৪ লাখ শ্রমিক।

বৃহস্পতিবার বিজিএমইএ ভবনে ‘রফতানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্পের বর্তমান শ্রম পরিস্থিতি’ বিষয়ক এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে বিজিএমইএ সহ-সভাপতি শহীদুল্লাহ আজীম, দ্বিতীয় সহ-সভাপতি এসএম মান্নান কচি, রিয়াজ বিন মাহমুদ সুমন উপস্থিত ছিলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, জুলাই ১৫ তারিখ পর্যন্ত শ্রমিকদের কাজের অর্থ পরিশোধ করেছে ৬৭ শতাংশ পোশাক কারখানা। আমরা পরিসংখ্যান করে এসব তথ্য বের করেছি। বেতন-বোনাস নিয়ে ঝামেলা করে এমন ১৫শ’ কারখানা ক্লোজ মনিটরিংয়ের মাধ্যমে এসব তথ্য উঠে এসেছে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও তথ্য দিয়ে বলেন, ১৪৮৯টি কারখানা পরিদর্শন করা হয়েছে। এরমধ্যে ১৪৮৭টি পোশাক কারখানা বেতন দিয়েছে, ঈদ বোনাস দিয়েছে ১৪৮৩টি। এছাড়া জুলাই মাসের অংশিক বেতনও দিয়ে ফেলেছে ৩১৫টি কারখানা। তিনি বলেন, ২টি কারখানার বেতন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সেখানকার শ্রমিকরাও বেতন পেয়ে যাবেন ঈদের আগেই।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, ৩ হাজার ২০০ কারখানার মধ্যে মাত্র দুটি কারখানা এখনও বেতন-বোনাস পরিশোধ করতে পারেনি। তবে এই কারখানা দুটির (গিতানো ও গার্মেক্স) শ্রমিকদের বেতন দেয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আশা করা হচ্ছে, সময় মতো এ দুটি কারখানার শ্রমিকরাও বেতন-বোনাস পেয়ে যাবেন।

সোয়ান গার্মেন্টসের শ্রমিকরা বেতনের দাবিতে প্রেস ক্লাবের সামনে আন্দোলন করছে সাংবাদিকরা এ প্রসঙ্গে বিজিএমইএ সভাপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, এটা সত্য এই গার্মেন্টস নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছে। তবে সেই সঙ্কট উত্তরণে সরকার ও সোয়ান গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ কাজ করছে। ওই কারখানার মালিক মৃত্যুবরণ করেছে বলেই এ সমস্যা তৈরি হয়েছে।