২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভোলায় ভাঙ্গনের ভয়াবহতা পরিদর্শনে বাণিজ্য মন্ত্রী

ভোলায় ভাঙ্গনের ভয়াবহতা পরিদর্শনে বাণিজ্য মন্ত্রী

নিজম্ব সংবাদদাতা. ভোলা ॥ ভোলার সদর উপজেলার উত্তরে ইলিশা ও রাজাপুর ইউনিয়নের ফেরিঘাট সংলগ্ন সড়কের ব্লক বাঁধ এলাকায় ঈদের দিন হঠাৎ করেই মেঘনা নদীর তীব্র ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ঈদের দিনেই ২৪ ঘন্টায় প্রায় ২’শ মিটার এলাকা মেঘনা গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। গত তিন দিনে প্রায় ৩ শ মিটার নদীতে বিলীন হয়েছে। ভাঙ্গনের মুখে পড়েছে ভোলা-লক্ষীপুর ফেরীঘাট, ২টি মৎস্য আড়ৎ, ২টি মসজিদ, ২টি বাজারসহ বিভিন্ন স্থাপনা। এছাড়াও সড়ক বিভাগ কর্তৃক প্রায় ২ কোটি টাকা ব্যয়ে সদস্য নির্মিত ভোলা-লক্ষীপুর মহা সড়কের ব্লক বাঁধ ধ্বসে আচ্ছে। ভাঙ্গনের তীব্রতা দেখে ওই এলাকার কয়েক হাজার মানুষ আতংকিত হয়ে পড়েছেন। অপর দিকে ভাঙ্গন পরিস্থিতি খবর পেয়ে সোমবার দুপুরে বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ইলিশা রাজাপুর এলাকা পরির্দশন করেন। এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রী তোফালে আহমেদ বলেছেন, অতি দ্রুত স্থায়ী ভাবে ভাঙ্গন রোধে ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে আশ্বাস দিয়ে বলেন,পানি সম্পদ মন্ত্রী ও যোগাযোগ মন্ত্রীর সাথে ঢাকায় গিয়ে কথা বলবো। তিনি আরো বলেন,এ সরকারের আমলে সব কিছু শান্ত। বিএনপির আমলে যে অত্যাচার হতো। এমনকি প্রাণী গরু পর্যন্ত পুড়িয়ে দিয়েছিলো। অথচ আমরা সহঅবস্থানে আছি। শেখ হাসিনার দল প্রতিহিংসা প্রতিশোধে বিশ্বাস করি না। সেই কারনেই বাংলাদেশের অবস্থা ভাল।

ভোলা সদরের উত্তরের গুরুত্বপূর্ন ইউনিয়ন ইলিশা ও রাজাপুর। এ দুটি ইউনিয়নের উপর দিয়ে ভোলা লক্ষীপুর মহা সড়ক এদিকে নদী ভাঙ্গন পরির্দশনকালে বাণিজ্য মন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন,ভোলা জেলা পরিষদ প্রশাসক আবদুল মবিন টুলু, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন,ভোলা পৌর মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান প্রমুখ।