১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দক্ষিণ ক্যারোলাইনায় বর্ণবাদী উত্তেজনা, সংঘর্ষ

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ক্যারোলাইনা অঙ্গরাজ্যের রাষ্ট্র ভবনের সামনে বর্ণবাদী শ্বেতাঙ্গদের সঙ্গে আফ্রিকান-আমেরিকানদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শনিবারের এ ঘটনায় পুলিশ অন্তত পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে বলে জানিয়েছে রাজ্য কর্তৃপক্ষ। ক্যারোলাইনার এই রাষ্ট্র ভবনের সামনে থেকেই গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের গৃহযুদ্ধকালীন দাসবিরোধী রাজ্যগুলোর কনফেডারেট পতাকা সরিয়ে নেয়া হয়। খবর এএফপির।

ওই দিন দুপুর থেকে রাষ্ট্র ভবনের উত্তর দিকে ফ্লোরিডাভিত্তিক গোষ্ঠী ‘ব্ল্যাক এডুকেটরস ফর জাস্টিস’ বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকে। সোয়া ৩টার দিকে দক্ষিণ দিক থেকে কনফেডারেট পতাকা ও নাৎসি পতাকা হাতে ৫০ জনের মতো শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী রাষ্ট্র ভবনের দিকে এগিয়ে আসলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় বিপুলসংখ্যক মানুষ বর্ণবাদীদের মিছিলটিকে লক্ষ করে বিদ্রƒপাত্মক উক্তি ও উপহাস করতে শুরু করে। পুলিশের একটি লাইন দু’পক্ষের মধ্যে দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়ে থাকে। কিন্তু বর্ণবাদীদের মিছিলটি রাষ্ট্র ভবনের সামনের রাস্তায় পৌঁছলেই দু’পক্ষের মধ্যে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়। সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে পুলিশ দ্রুত পদক্ষেপ নেয়, অন্তত পাঁচজনকে গ্রেফতার করে। এক বিবৃতিতে দক্ষিণ ক্যারোলাইনা জননিরাপত্তা বিভাগ জানিয়েছে, এ্যাম্বুলেন্সে করে সাতজনকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

বিবৃতিতে আহতদের আঘাতের বিষয়ে কোন তথ্য জানানো হয়নি। তবে সংঘর্ষের ঘটনায় কোন পুলিশ আহত হয়নি বলে জানিয়েছে। গত মাসে এক শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী তরুণ দক্ষিণ ক্যারোলাইনার চার্লসটনের একটি ঐতিহাসিক গির্জায় নয় আফ্রিকান-আমেরিকানকে গুলি করে হত্যার পর থেকে রাজ্যজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। হত্যাকারী ডিলান রুফ কনফেডারেট পতাকার মতো প্রতীকগুলো দিয়ে অনুপ্রাণিত ছিলেন বলে পরে প্রমাণ পাওয়া যায়। এসব সমাবেশের আগে যুক্তরাষ্ট্রের বর্ণবাদী শ্বেতাঙ্গদের কট্টরপন্থী গোষ্ঠী কু ক্লাক্স ক্লান রাষ্ট্র ভবনের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করার ঘোষণা দিয়েছিল। কিন্তু রাষ্ট্র ভবনের দক্ষিণের সিঁড়িতে অবস্থান নেয়া গোষ্ঠীটি ডেট্রয়েট ভিত্তিক ন্যাশনাল সোশ্যালিস্ট মুভমেন্ট পার্টির ব্যানার বহন করে ‘সাদা ক্ষমতা’ বলে স্লোগান দিচ্ছিল। এই গোষ্ঠীটিকে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় ও প্রভাবশালী ‘নব্য-নাৎসি’ গোষ্ঠী বলে বর্ণনা করেছে সাউদার্ন প্রভার্টি ল সেন্টার।