২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সেই মুলিবাড়িতে ফের বাসচাপায় একই পরিবারের ৪জনসহ নিহত ৫

  • সাতক্ষীরায় হত ২

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের মুলিবাড়িতে ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ফের দুর্ঘটনা ঘটেছে। সোমবার রাতে বাসচাপায় একই পরিবারের চারজন এবং সিএনজি চালকসহ পাঁচজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও একজন। এছাড়া সাতক্ষীরায় দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছে। এদিকে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় তিন বাসের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৪০জন আহত হয়েছে। দুর্ঘটনার পর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে প্রায় এক ঘণ্টা যান চলাচল ব্যাহত হয়। খবর স্টাফ রিপোর্টারদের।

সিরাজগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত একই পরিবারের চার সদস্য হলেন বেলকুচির আগুরিয়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক, তার মেয়ে রোজিনা খাতুন, তার ছেলে এবং ছেলের স্ত্রী। নিহত সিএনজিচালক আরমানের বাড়ি সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার পোড়াবাড়ী গ্রামে।

পুলিশ জানায়, সোমবার রাতে পারিবারিক সংঘর্ষে আহত রোজিনা খাতুন (১৬) নামে এক স্কুলছাত্রীকে নাকের চিকিৎসা করাতে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন পরিবারের সদস্যরা। চিকিৎসা শেষে রোজিনাকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে রাত পৌনে একটার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম সংযোগ সড়কের মুলিবাড়ি রেলক্রসিং এলাকায় নারায়ণগঞ্জ থেকে রাজশাহীগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস সিএনজি অটোরিক্সাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ওই স্কুলছাত্রীসহ তার বাবা, ভাই ও ভাবি নিহত হয়। গুরুতর আহত সিএনজি চালকসহ দুইজনকে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে আনা হলে সিএনজিচালক আরমান মারা যায়। অপরজন চিকিৎসাধীন রয়েছে। একই স্থানে রবিবার দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২৫ জন নিহত এবং ৪৫ জন আহত হয়।

মুন্সীগঞ্জ ॥ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা-গোমতী সেতুর পশ্চিম ঢালে বাউশিয়া এলাকার কবুতর পয়েন্টে মঙ্গলবার তিন বাসের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৪০ যাত্রী আহত হয়েছে। এদের মধ্যে একজনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার পর বেলা ১১টা পর্যন্ত প্রায় এক ঘণ্টা মহাসড়কে যান চলাচল ব্যাহত হয়।

গজারিয়ার ভবেরচর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সার্জেন্ট সাইফুল ইসলাম জানান, কুমিল্লাগামী তিশা পরিবহনের সঙ্গে ঢাকাগামী এশিয়া ক্লাসিক ও নিউ যাত্রীসেবার সংঘর্ষ হয়। এতে আহত হয় কমপক্ষে ৪০ জন। এর মধ্যে ‘এশিয়া ক্লাসিক’ বাসের অজ্ঞাত পুরুষ যাত্রী (৬৫) মারাত্মক জখম হন। তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহতদের গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। দুর্ঘটনার পর মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। তবে এক ঘণ্টার মধ্যেই যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কের মীর্জাপুর এলাকায় যাত্রীবাহী দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত ও কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যার কিছু আগে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত যাত্রীরা হলেন যশোর জেলার মনিরামপুর থানার গোপালপুর গ্রামের মৃত জোহর আলীর ছেলে সাহেব আলী (৪০) ও খুলনা জেলার ডুমুরিয়া থানার খর্নিয়া গ্রামের বাস হেলপার তপন কুমার (৩০)। আহতদের সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

পাটকেলঘাটা থানার ওসি তরিকুল ইসলাম জানান, মীর্জাপুর এলাকায় খুলনাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের (নং-খুলনা মেট্রো-জ-০৪-০০-৭৮) সঙ্গে সাতক্ষীরাগামী অপর একটি যাত্রীবাহী বাসের (খুলনা মেট্রো-জ-১১-০১-০৭) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।