২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লতিফ সিদ্দিকীর এমপি পদ শূন্য ঘোষণা প্রশ্নে দ্রুতই সিদ্ধান্ত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর সংসদ সদস্যপদ শূন্য ঘোষণার বিষয়ে দ্রুতই সিদ্ধান্ত নেবে ইসি। এর আগে তার সংসদ সদস্যপদ শূন্য ঘোষণার বিষয়ে ইসিতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। কমিশন জানিয়েছে স্পীকারের চিঠি পাওয়ার পর ইতোমধ্যে লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্য জানতে তাকে চিঠি দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি আওয়ামী লীগের বক্তব্য চেয়ে দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফকেও চিঠি দেয়া হয়েছে। চিঠির বক্তব্য পাওয়ার পরপরই এ বিষয়ে ইসিতে শুনানি করা হবে বলে জানা গেছে। এরপরই লতিফ সিদ্দিকীর সংসদ সদস্যপদ থাকবে কিনা তা নিয়ে সিদ্ধান্ত জানাবে ইসি। দুই সপ্তাহের মধ্যে তাদের চিঠির জবাব দিতে বলা হয়েছে।

ইসি সচিব মোঃ সিরাজুল ইসলাম এ বিষয়ে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে দু’জনের বক্তব্য নিতেই লতিফ সিদ্দিকীর এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। বিশেষ বাহক মারফত পাঠানো চিঠির জবাব পাওয়ার পর সৈয়দ আশরাফ ও লতিফ সিদ্দিকীকে নিয়ে শুনানি করবে ইসি।

ইসির আইন শাখার কর্মকর্তারা জানান, দু’জনকে দুই সপ্তাহের মধ্যে নিজেদের বক্তব্য লিখিত আকারে কমিশন সচিবের কাছে পাঠাতে বলা হয়েছে। লতিফ সিদ্দিকীর ঢাকা ও টাঙ্গাইলের বাসার ঠিকানায় এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের চিঠি দলীয় ঠিকানায় পাঠানো হয়েছে। সংসদ সদস্য (বিরোধ নিষ্পত্তি) আইন অনুযায়ী, স্পীকার কোন সংসদ সদস্যের আসন শূন্য ঘোষণার বিষয়ে ইসিকে চিঠি দিলে পরবর্তী ১৪ দিনের মধ্যে তা বিরোধ উপস্থাপনকারী ও যার বিরুদ্ধে বিরোধ উপস্থাপন হয়েছে, উভয়পক্ষকে জানানো হয়। তাদের কোন বক্তব্য থাকলে তা জানতে ইসি নির্ধারিত সময় বেঁধে দেয়। এরপর উভয় পক্ষের শুনানি করা হবে। পরে সবকিছু পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত দেবে ইসি।

এ বিষয়ে সাবেক নির্বাচন কমিশনার ছহুল হোসাইন সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে বলেন, লতিফ সিদ্দিকীর সংসদ সদস্যপদ থাকা না থাকার বিষয়টি এখন দলীয় সিদ্ধান্তের বিষয়। তাকে বহিষ্কারের বিষয়ে দল সংসদ সচিবালয়কে জানালে স্পীকার তা নির্বাচন কমিশনের কাছে পাঠাবেন। এরপর নির্বাচন কমিশন সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

নির্বাচিত সংবাদ