২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মেসির সমর্থন স্বৈরশাসককে!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অর্থের মোহ কার না আছে! লিওনেল মেসিও না কি অর্থের লোভ সামলাতে পারেননি! আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের উদ্ধৃতিতে জানা গেছে, আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি আফ্রিকার দেশ গ্যাবনে একটি স্টেডিয়াম উদ্বোধন করে ২৪ লাখ পাউন্ড সম্মানী নিয়েছেন। দেশটির প্রেসিডেন্ট আলী বঙ্গো নতুন স্টেডিয়ামের সঙ্গে নিজের পারিবারিক রেস্তরাঁও উদ্বোধন করেন মেসিকে দিয়ে। আগামী ২০১৭ সালের আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সের জন্য পোর্ট জেনটিল শহরে নির্মাণাধীন ওই স্টেডিয়ামের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন মেসি। এ জন্য সাবেক রেকর্ড টানা চারবারের ফিফা সেরা ফুটবলার নিয়েছেন সম্মানী। আন্তর্জাতিক অনেক সংবাদমাধ্যম মেসির সম্মানী গ্রহণকে ‘অস্বাভাবিক’ হিসেবে উল্লেখ করেছে। তাদের মতে, মেসি গ্যাবনের স্বৈরশাসক ও মানবতা লঙ্ঘনে অভিযুক্ত প্রেসিডেন্ট আলী বঙ্গোর আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে সেখানে গিয়েছেন। একটি সূত্র জানিয়েছে, সেখানে যাওয়ার আগে প্রেসিডেন্ট আলী বঙ্গোকে নিয়ে পড়াশোনা করা উচিত ছিল মেসির, এই মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী ও নির্যাতনকারীর কাছ থেকে তার এত অর্থ নেয়া উচিত হয়নি। মেসি বঙ্গো পরিবারের একটি রেস্তরাঁ উদ্বোধন করে তার স্বৈরশাসনের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন বলেও প্রচার করছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ বাতিল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফিফার দুর্নীতির মাসুল দিতে হচ্ছে কোটি কোটি ফুটবল ভক্তকে। আগামী সেপ্টেম্বরে নির্ধারিত ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার প্রীতি ম্যাচটি বাতিল করা হয়েছে। যে কারণে ফুটবলবিশ্ব বঞ্চিত হচ্ছে লিওনেল মেসি ও নেইমারের দ্বৈরথ দেখা থেকে। ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচ যুক্তরাষ্ট্রে ৫ সেপ্টেম্বর হওয়ার কথা ছিল। ফিফার সম্প্রতি দুর্নীতির কারণেই এই ম্যাচটি বাতিল করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কেননা তদন্তের পর ফিফার বিপক্ষে দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়টি ছড়িয়ে পড়াতেই ‘আমেরিকার সুপার ক্লাসিক’ নামে পরিচিত ম্যাচটি হবে না। আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের লজিস্টিক সামলানো প্রতিষ্ঠানটি মঙ্গলবার ম্যাচটি বাতিল হয়ে যাওয়ার কথা জানায়। আর্জেন্টিনার প্রীতি ম্যাচ আয়োজনের স্বত্ব পাওয়া কোম্পানি ফুল প্লের দুই মালিকের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের জাস্টিস ডিপার্টমেন্টের অভিযোগ ওঠার পর তাদের আর্জেন্টিনায় গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে। এ কারণে ম্যাচটি বাতিল হয়েছে। গত ২৯ মে ফিফার নির্বাচনের দুইদিন আগে দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার নয় শীর্ষ কর্মকর্তাসহ মোট ১৪ জনকে আটক করে সুইস পুলিশ।