২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মোহামেডান-মুক্তিযোদ্ধা ম্যাচ নিষ্প্রাণ ড্র

  • প্রিমিয়ার ফুটবল লীগে চট্টগ্রাম আবাহনী হারাল রহমতগঞ্জকে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কোন অঘটন না ঘটলে লীগে শিরোপা অক্ষুণœ রাখার সম্ভাবনা আছে শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাব লিমিটেডের। কাজেই জামালের নিচে থাকা নিকটতম দলগুলোর মধ্যে এখন দ্বিতীয় সেরা অর্থাৎ রানার্সআপ হওয়ার জোর লড়াই চলছে। সে লড়াইটা বেশ ভালমতোই জমে উঠেছে দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী ঢাকা আবাহনী ও মোহামেডানের মধ্যে। মঙ্গলবার মোহামেডানকে টপকে আবাহনী উঠে এসেছিল পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বরে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই আবাহনীকে টপকে মোহামেডান সেই স্থানটা পুনরুদ্ধার করে নিল। বুধবার ‘মান্যবর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ’ ফুটবলের দ্বিতীয় পর্বের খেলায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। নিজেদের ১৬ ম্যাচে এটা ‘ব্ল্যাক এ্যান্ড হোয়াইট’ খ্যাত মোহামেডানের চতুর্থ ড্র। ৩১ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এলো তারা। সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট আবাহনীরও। তবে গোল তফাতে এগিয়ে থাকায় মোহামেডানই তাদের ওপরে। পক্ষান্তরে ‘অল রেডস’ খ্যাত মুক্তির এটা ১৬ ম্যাচে চতুর্থ ড্র। ২১ পয়েন্ট নিয়ে আগের ষষ্ঠ স্থানেই রয়ে গেল তারা।

চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম ম্যাচে সফরকারী রহমতগঞ্জ এমএফএসকে ১-০ গোলে হারায় স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। ৭৮ মিনিটে ম্যাচের একমাত্র গোল করেন ইয়োকো সামনিক। এই জয়ে ১৫ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দশম স্থানেই থাকল চট্টগ্রাম আবাহনী। সমান ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে তাদের থেকে একধাপ ওপরে (নবম) আছে ‘জায়ান্ট কিলার’ খ্যাত রহমতগঞ্জ।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ২৫ মিনিটে এগিয়ে যায় মোহামেডান। সোহেল রানার গড়ানো ফ্রি কিকে তীব্র শটে মুক্তিযোদ্ধার জাল কাঁপান গিনির ফরোয়ার্ড ইসমাইল বাঙ্গুরা (১-০)। এটা তার চলমান লীগে ব্যক্তিগত চতুর্দশ গোল, যা দ্বিতীয় সর্বাধিক (অংশীদার ব্রাদার্সের অগাস্টিন ওয়ালসন)। ৩৪ মিনিটে নিজেদের বক্সে মুক্তি অধিনায়ক-ফরোয়ার্ড এনামুল হককে ফাউল করেন সাদা-কালোদের নাইজিরিয়ান ডিফেন্ডার এলেটা বেঞ্জামিন। রেফারি জালালুদ্দিন পেনাল্টির নির্দেশ দেন। পেনাল্টি শটে ম্যাচে সমতা আনেন এনামুল। এটি লীগে এনামুলের একাদশ গোল। যা চলমান লীগে দেশীয় ফুটবলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। আগের ম্যাচেই ফরাশগঞ্জকে ৬-১ গোলে হারিয়ে বড় ব্যবধানে জয় পাওয়া মোহামেডান মুক্তির বিপক্ষে আবারও হোঁচট খেল পয়েন্ট হারিয়ে। যদিও এই ড্রয়ে তাদের লাভই হয়েছে, পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বরে উঠে আসায়। কিন্তু বুধবারের ম্যাচে তাদের খেলা দেখে মোটেও সন্তুষ্ট হতে পারেননি মাঠের গ্যালারিতে খেলা উপভোগ করতে আসা মোহামেডানের সমর্থকরা। তারা ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত প্রচুর গালাগাল দিয়েছেন নিজ দলের ফুটবলার ও কোচকে। এত গালাগালেও ‘অনুপ্রাণিত’ হতে পারেনি জোসির শিষ্যরা। প্রচুর আক্রমণ তারা করেছে ঠিকই, তবে একবারের বেশি সেই আক্রমণ সফলতার মুখ দেখেনি। পক্ষান্তরে মুক্তিযোদ্ধা এ নিয়ে টানা ছয় ম্যাচ জয়হীন থাকল। বলা যায়, তাদের লীগ শিরোপা জয়ের স্বপ্ন একেবারেই শেষ!