২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে ৮১৩ কোটি টাকার লেনদেন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পুঁজিবাজারে তারল্য প্রবাহ বাড়তে শুরু করেছে। বিনিয়োগকারীদের আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাওয়ার কারণে গত কয়েকদিন ধরে ধারাবাহিকভাবে লেনদেনের পরিমাণও বাড়ছে। এরই অংশ হিসেবে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবারে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন ছাড়িয়েছে ৮শ কোটি টাকা। দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৮১৩ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। বুধবারের তুলনায় লেনদেন বেড়েছে ৯৮ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। একইভাবে সেখানে সব ধরনের সূচকই বেড়েছে প্রায় ২ শতাংশ করে। ঢাকার মতো দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) লেনদেনের পরিমাণ বেড়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বহুজাতিক ও বড় মূলধনী কোম্পানিগুলোর চাহিদা বাড়ার দিনে লেনদেনের পাশাপাশি সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা অব্যাহত রয়েছে। সকাল থেকে ইতিবাচকভাবে লেনদেন শুরুর পরে সার্বিক সূচক ৬৬.৪১ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৮০৮.৩৯ পয়েন্টে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। যা গত চার মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। এছাড়া ঈগের আগে ও পরে টানা ৯ কার্যদিবসে সুচকের উত্থানে শেষ হয়েছে বাজার লেনদেন। এ সময়ে সূচক বেড়েছে ৬.২৩ শতাংশ।

দিনটিতে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ৩১৬টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৭টির, কমেছে ১০০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির দর। এই দিনে সর্বোচ্চ দর বেড়ে সার্কিট ব্রেকারে অবস্থান করছিল মোট ৭টি কোম্পানি। এই ৭টি কোম্পানির বিক্রেতাশূন্য অবস্থায় লেনদেন হয়েছে।

ডিএসইতে দিনটিকে লেনদেনের শীর্ষে ছিল লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট। দিনশেষে কোম্পানিটির ৬৭ কোটি ৬৫ লাখ ৩০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা স্কয়ার ফার্মার লেনদেন হয়েছে ৩৩ কোটি ২৫ লাখ ৬৪ হাজার টাকা। ৩১ কোটি ৭৯ লাখ ৪১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে আর এ কে সিরামিকস। পরের স্থানের কোম্পানিগুলো হলো : এসিআই, খুলনা পাওয়ার, গ্রামীণফোন, শাহজিবাজার পাওয়ার, রেনেটা, বিএসআরএম ও ইসলামী ব্যাংক।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো: আলহাজ্ব টেক্সটাইল, বিডি ল্যাম্পস, বিএসআরএম লিমিটেড, ইসলামী ব্যাংক, সিএমসি কামাল, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, ইবনে সিনা, কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স ও বার্জার পেইন্টস।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : আইসিবি ১ম এনআরবি, মেঘনা পেট, অগ্রনী ইন্স্যুরেন্স, হাক্কানী পাল্প, সায়হাম কটন, ন্যাশনাল হাউজিং অ্যান্ড ফাইনান্স লিমিটেড, বিডি থাই, এসিআই ফর্মূলেশন, জেমিনী সী ফুড ও শাহজিবাজার পাওয়ার।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সিএসসিএক্স ১১৬.৯৫ পয়েন্ট বেড়ে দিনশেষে ৮হাজার ৯৬৫.২৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হয়েছে ৫২ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৫০টির, কমেছে ৭৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮টির দর।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো: লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, বিএসআরএম লিমিটেড, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মা, বে´িমকো, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, গ্রামীন ফোন, শাহজিবাজার পাওয়ার, ইউনাইটেড এয়ার ও বে´িমকো ফার্মা।