২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বেফাঁস উক্তি করায় খালেদার আইনজীবীদের সতর্ক করলেন বিচারক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানির শেষ সময়ে খালেদা জিয়ার এক আইনজীবী এই দুই মামলার বাদী ও প্রথম সাক্ষীকে ধমক দিয়ে বলেন, ‘ওই বেটা চুপ কর।’ বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার বকশিবাজারে কারাকর্তৃপক্ষের প্যারেড মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী এজলাসে ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের আদালতে ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় আদালত ক্ষিপ্ত হয়ে যায় এবং আদালতে এ ধরনের বাক্য ব্যবহার করাকে সন্ত্রাসী কর্মকা- হিসেবে মন্তব্য করে। আদালতে নিজেদের আইনজীবীদের পক্ষে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলে আদালত ভবিষ্যতের জন্য তাদের সতর্ক করে দেয়।

ঘটনাটি ঘটে খালেদার দুই দুর্নীতি মামলার শুনানির শেষ পর্যায়ে। ওই সময় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার বাদী ও প্রথম সাক্ষী দুদকের উপ-পরিচালক হারুন অর রশিদ বিচারককে উদ্দেশ করে কিছু একটা বলছিলেন। এমন সময় খালেদা জিয়ার পক্ষে আদালতে উপস্থিত হওয়া আইনজীবীদের মধ্য থেকে এক সাক্ষীকে ধমক দিয়ে বলেন, ‘ওই বেটা চুপ কর।’ সঙ্গে সঙ্গে বিচারক ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন, কে এ ধরনের কথা বলেছেন? সাহস থাকলে সামনে আসেন (ওই সময় সব আইনজীবীই দাঁড়িয়েছিলেন, খালেদা জিয়ার সামনে সবাই ভিড় জমিয়েছিলেন)। আমি এ ধরনের বক্তব্য সহ্য করব না। বিচারক আরও বলেন, সামনে আসেন, নয়ত আমি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বলব ব্যবস্থা নিতে। বিচারক বলেন, আদালতে এ ধরনের বক্তব্য সন্ত্রাসমূলক। আইনজীবীর মুখ থেকে এ ধরনের কথা আশা করা যায় না। বিচারক আরও বলেন, আমি মনে করি যে আইনজীবী আদালতে এ ধরনের বাক্য ব্যবহার করতে পারেন তিনি আইনজীবীর পোশাকধারী সন্ত্রাসী।

পরে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষের কোন আইনজীবী এ ধরনের বক্তব্য দিতে পারে বলে আমি মনে করি না। পরে বিচারক ওই বাক্য ব্যবহারকারীর স্থান চিহ্নিত করেন, যেখানে খালেদা জিয়ার সব আইনজীবীই দাঁড়িয়েছিলেন। এর পর খোকন বলেন, আমি বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য হিসেবে সকল আইনজীবীর পক্ষে নিঃশর্ত ক্ষমা চাচ্ছি। পরে আদালত তাদের সতর্ক করে দিয়ে বলে, ভবিষ্যতে এ ধরনের কোন কর্মকা- সহ্য করা হবে না।

আদালতের কার্যক্রম শেষে দুদকের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল সাংবাদিকদের বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) আদালতে খালেদা জিয়ার এক আইনজীবী যে ধরনের বাক্য ব্যবহার করেছেন তা ন্যক্কারজনক। আদালত এই বাক্যকে সন্ত্রাসমূলক বলে আখ্যা দিয়েছে। আদালত খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের সতর্কও করেছে। একজন আইনজীবী কিভাবে আদালতে এ ধরনের বাক্য ব্যবহার করেন তা আমার জানা নেই।

এই মাত্রা পাওয়া