১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মেধাবী কলেজছাত্রী ইতুর জীবন বাঁচাতে সহায়তা দিন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মেধাবী কলেজছাত্রী হুমায়রা সুলতানা ইতুর (১৯) জীবন বাঁচাতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন। তিনি দুরারোগ্য ব্যাধি ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত। আগামী ৮ আগস্ট তাঁর বিয়ে সম্পন্ন করার কথা ছিল। নববধূর সাজে সজ্জিত হয়ে তিনি বসবেন বিয়ের পিঁড়িতে। বাড়িতে চলছিল বিয়ের সাজ সাজ রব। সব কিছুই চলছিল ঠিকঠাক। কিন্তু এরই মধ্যে ইতুর দেহে ক্যান্সার শনাক্ত হয়। হঠাৎ ইতুর ভীষণ জ্বর। ওষুধেও জ্বর যায় না। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় দেখা দিয়েছে কালো কালো দাগ। প্রথমে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় যশোরের একটি হাসপাতালে। সেখানে ডাক্তার লেফটেন্যান্ট কর্নেল মনোয়ার তারেকের শরণাপন্ন হন তারা। পরবর্তীতে ইতুকে রাজধানীর মহাখালীর ক্যান্সার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে তার ক্যান্সারে আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন চিকিৎসকরা। সংবাদটি জানাজানি হলে মুহূর্তের মধ্যে দুটি পরিবারের মধ্যে নেমে আসে বিষাদের ছায়া। যশোরের চৌগাছা পৌরসভার বিশ্বাসপাড়ায় তাদের বাড়ি। চৌগাছা পৌর এলাকার বিশ্বাসপাড়ায় কলেজের ছাত্রী ইতু। পিতা হুমায়ুন কবির একজন ইলেকট্রিক মিস্ত্রি, মা ফাতেমা বেগম গৃহিণী। পরিবারটির আর্থিক অবস্থা খারাপ। ভিটামাটি ছাড়া সহায়সম্পত্তি বলতে কিছুই নেই। মাতাপিতার একমাত্র আদরের কন্যা হুমায়রা সুলতানা ইতু। দারিদ্র্যের সঙ্গে সংগ্রাম করে লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। বর্তমানে তিনি ঢাকার ক্যান্সার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। টাকার অভাবে তার সুচিকিৎসা চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এমতাবস্থায়, ইতুর চিকিৎসার জন্য সকল হৃদয়বান ও দানশীল ব্যক্তির আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন তার অসহায় মাতাপিতা। চিকিৎসায় সহযোগিতা দিতে সরাসরি যোগাযোগ করুন এই মোবাইল নম্বরে-০১৯৩০-৭৭৩৭৪১। সাহায্য দিন এই সঞ্চয়ী হিসাবে- মোঃ হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, চৌগাছা শাখা, যশোর, হিসাব নং-৭২৭৬ ।

ঘোষণা : দৈনিক জনকণ্ঠ মানুষ মানুষের জন্য বিভাগে খবর প্রকাশের মাধ্যমে সহৃদয় ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগ ঘটিয়ে দিয়ে থাকে। সাহায্য সরাসরি সাহায্যপ্রার্থীর ব্যাংক এ্যাকাউন্টে জমা দিতে হবে। অথবা সাহায্যপ্রার্থীর দেয়া মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করতে হবে। দৈনিক জনকণ্ঠ এ বিষয়ে কোন দায়ভার গ্রহণ করবে না।

নির্বাচিত সংবাদ