১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ শিল্পী টুটুলের চিত্রপ্রদর্শনী ‘কালের বাহাস’

  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ চিত্রশিল্পী হারুন-অর-রশীদ টুটুল। রঙে রঙে রাঙিয়ে তোলেন আপন ক্যানভাস। তবে সেই চিত্রপটে কোন সুখদৃশ্য নয়, সহজাতভাবেই তাড়িত হয় সমাজ ভাবনায়। রাষ্ট্র ও রাজনীতির নানা অসঙ্গতির সঙ্গে জীবন বাস্তবতার দৃশ্যকল্প চিত্রিত হয় টুটুলের তুলির আঁচড়ে। অমানবিক সময়ের স্রোতে ভেসে যাওয়ার বিরুদ্ধে যেন প্রতিবাদী রঙের মিছিল হয়ে ওঠে তাঁর ছবি। আর এমনই সব ছবি নিয়ে ২৭ জুলাই থেকে ফরাসী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র আলিয়ঁস ফ্রঁসেজে শুরু হচ্ছে এই শিল্পীর চিত্রকর্ম প্রদর্শনী। লা গ্যালারিতে অনুষ্ঠিতব্য প্রদর্শনীর শিরোনাম ‘কালের বাহাস’।

আলিয়ঁস ফ্রঁসেজের অনুষ্ঠান বিভাগের কর্মকর্তা মামুন-অর-রশীদ জানান, আগামী সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় হারুন-অর-রশীদ টুটুলের কালের বাহাস শীর্ষক প্রদর্শনীর উদ্বোধন হবে। প্রধান অতিথি হিসেবে প্রদর্শনী উদ্বোধন করবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখবেন সমন্বিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ আবদুল কাইয়ুম। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেন, বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউনুস ও চিত্রসমালোচক মুস্তাফা জামান।

প্রদর্শনীর চিত্রকর্ম প্রসঙ্গে হারুন-অর-রশীদ টুটুল জনকণ্ঠকে বলেন, অমানবিক এক সময়ের স্রোত বয়ে যাচ্ছে গ্রাম থেকে শহর কিংবা নগর থেকে বন্দরে। পাল্টে যাচ্ছে আমাদের চিরচেনা এই দেশটা। দেশের সমাজ-সংস্কৃতি-রাজনীতির ইতিহাসে আঁকা ছবি আর যাপিত জীবনের অভিজ্ঞতার ব্যবধান তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে। মানবতা-বিবর্জিত রাজনীতি ক্রমশই কঠিন করে তুলছে মানুষের জীবনকে। শুধুমাত্র ক্ষমতার লোভে ঘটে চলেছে সংঘাত-হানাহানি। আর ক্ষমতাকেন্দ্রিক এসব ঘটনার বলি হচ্ছে রাষ্ট্রের নিচুতলার বিত্তহীন বাসিন্দারা। মুনাফার লোভে একদিকে বিরাজ করছে মূল্যবোধহীন রাজনীতি, লক্ষ্যহীন ও বাণিজ্যিক শিক্ষাব্যবস্থা, গলাটিপে ধরা চিকিৎসা ব্যবস্থা ও অপরিকল্পিত নগরায়ন। সেই সাথে বিপর্যস্ত হচ্ছে পরিবেশ। আরেকদিকে রয়েছে মা-মাটি-মানুষ এবং প্রাণ ও প্রকৃতির চিরন্তন প্রবাহ। মনের গভীরে স্রোতস্বিনী নদীর মতো বইতে থাকা ভাষা আন্দোলন, স্বাধিকারের সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। কাক্সিক্ষত সমাজ আর দৃশ্যমান বাস্তবতার এই দুই বিপরীতমুখী ছবির সংঘাতে ক্ষতবিক্ষত মানুষের মুখচ্ছবি এবং তার পরিপার্শ্বের ছবিটাই আঁকার চেষ্টা করেছি আমি। তেমন কিছু চিত্রকর্ম নিয়েই অনুষ্ঠিত হবে কালের বাহাস শীর্ষক প্রদর্শনী।

প্রদর্শনীতে ঠাঁই পাবে এ্যাক্রিলিক মাধ্যমে চিত্রিত ৩০টি চিত্রকর্ম। ২৭ জুলাই শুরু হওয়া দশ দিনব্যাপী এ প্রদর্শনী শেষ হবে ৫ আগস্ট। প্রতি সোম থেকে বৃহস্পতিবার বেলা ৩টা থেকে রাত নয়টা এবং শুক্র ও শনিবার সকাল ৯টা থেকে ১২টা ও বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। রবিবার সাপ্তাহিক বন্ধ।

আইজিসিসিতে আজ অর্ণব ভট্টাচার্যের সরোদসন্ধ্যা ॥ ভারতের উদীয়মান সরোদবাদক অর্ণব ভট্টাচার্য। ঐতিহ্যের সঙ্গে আধুনিকতার সম্মিলন ঘটিয়ে সরোদে সুর ছড়ান এই শিল্পী। সেই সুরেলা শব্দধ্বনি সৃষ্টির সুবাদে পেয়েছেন অনেক পুরস্কার। আজ শনিবার সন্ধ্যায় ইন্দিরা গান্ধী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (আইজিসিসি) সরোদ বাজিয়ে শোনাবেন অর্ণব ভট্টাচার্য। গুলশানের আইজিসিসি মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি সবার জন্য উন্মুক্ত।

রবিবার মঞ্চস্থ হবে প্রাঙ্গণেমোর প্রযোজনা রক্তকরবী ॥ রবিবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে মঞ্চস্থ হবে প্রাঙ্গণেমোরের প্রযোজনা রক্তকরবী। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন নূনা আফরোজ। এছাড়া আগামী ১ আগস্ট নাটকটি মঞ্চায়িত হবে কলকাতার একাডেমী অব ফাইন আর্টস মিলনায়তনে। কলকাতার বিখ্যাত নাট্যদল পূর্ব-পশ্চিম আয়োজিত নাট্যোৎসবে আমন্ত্রিত হয়ে রক্তকরবী নাটক নিয়ে ৩১ জুলাই ভারত যাচ্ছে নাট্যদল প্রাঙ্গণেমোর।

যক্ষপুরী রাজ্যের রাজার মকররাজ। এই রাজমহলের বাহির দেয়ালে একটি জালের জানালা আছে। সেই জালের আড়াল থেকে মকররাজ তাঁর ইচ্ছামতো পরিমাণে মানুষের সঙ্গে দেখাশোনা করে থাকেন। এই রাজ্যের যাঁরা সর্দার তাঁরা যোগ্য লোক এবং যাকে বলে বহুদর্শীÑ তাঁরা রাজার অন্তরঙ্গ পার্ষদ। তাঁদের সতর্ক ব্যবস্থাগুণে খোদাইকরদের কাজের মধ্যে ফাঁক পড়তে পায় না এবং যক্ষপুরীর নিরন্তর উন্নতি হতে থাকে। এখানকার মোড়লরা এক সময়ে খোদাইকর ছিল, নিজগুণে তাদের পদবৃদ্ধি এবং উপাধিলাভ ঘটেছে। কর্মনিষ্ঠতায় তারা অনেক বিষয়ে সর্দারদের ছাড়িয়ে যায়। ঘটনাচক্রের রাজ্যের জেলেদের জালে দৈবাৎ মাঝে মাঝে অখাদ্য জাতের জলচর জীব আটকা পড়ে। তাদের দ্বারা পেটভরা বা ট্যাঁক-ভরার কাজ তো হয়ই না, মাঝের থেকে তারা জাল ছিঁড়ে দিয়ে যায়। এই নাট্যের ঘটনাজালের মধ্যে নন্দিনী নামক একটি কন্যা তেমনিভাবে এসে পড়েছে। মকররাজ যে বেষ্টনীর আড়ালে থাকেন সেটাকে যেন ভাঙতে চায় এই মেয়েটি। এভাবেই এগিয়ে যায় নাটকের কাহিনী।

ঢাকায় পাঁচ রাষ্ট্রদূতের বাসায় শুরু হচ্ছে ‘আর্ট উইকেন্ড’ ॥ ঢাকায় পাঁচ দেশের রাষ্ট্রদূতের বাসায় দুদিনব্যাপী ‘আর্ট উইকেন্ড’ শুরু হচ্ছে আজ শুক্রবার। ব্রাজিল, জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, নরওয়ে এবং সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বাসায় শুরু হতে যাওয়া এই চিত্র প্রদর্শনী চলবে শনিবার পর্যন্ত।

দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশে বিদেশী দূতাবাসগুলো নিজ নিজ দেশের ঐতিহ্য ও স্বকীয়তা তুলে ধরতে এ ধরনের আয়োজন করতে যাচ্ছে। এ আয়োজনের মাধ্যমে প্রবাস ও স্থানীয় ছবি এবং চিত্রকর্ম প্রেমিকদের একটি প্ল্যাটফর্মে সমবেত করা হচ্ছে। সেখানে মেধাবীদের তোলা ছবি ও চিত্রকর্মের মাধ্যমে বাংলাদেশে জীবনযাত্রার মূল নির্যাস, সৌন্দর্য্য এবং দ্যুতি তুলে ধরা হবে।