২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাগরিকায় সকালের সেশনের দিনে তাকিয়ে হারমার

  • বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট

স্পোর্টস রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে ॥ দারুণ বোলিংয়ের পর সুন্দর ব্যাটিং প্রদর্শনী দেখিয়েছে বাংলাদেশ দল। আর সে কারণেই তৃতীয় দিনশেষে দক্ষিণ আফ্রিকার চেয়ে ১৭ রানে এগিয়ে আছে তারা। যদিও তৃতীয় দিনশেষে দ্বিতীয় ইনিংসে বিনা উইকেটে ৬১ রান তুলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু যেভাবে উইকেটে স্পিনাররা টার্ন পাচ্ছেন এবং বৃষ্টির দাপট থাকায় আর্দ্রতা বেড়েছে আজ চতুর্থ দিনে ঘটতে পারে অনেক অযাচিত ঘটনা। সে কারণে দারুণ সতর্ক প্রোটিয়ারা। ১০৫ রানে তিন উইকেট শিকার করা দক্ষিণ আফ্রিকা অফস্পিনার সাইমন হারমার এ জন্যই জানালেন আজ তাদের প্রধান লক্ষ্য সকালের সেশন ভালভাবে পাড়ি দেয়া। তবে বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের প্রশংসা করলেন তিনি। চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনশেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

উপমহাদেশের উইকেটে বরাবরই সুবিধা পায় স্পিনাররা। সেই সুবিধাটা পেয়েছেন হারমারও। কিন্তু এটাই এখন দুশ্চিন্তার কারণ হতে পারে দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য। কারণ চতুর্থ দিনে চাপ কাটিয়ে উল্টো বাংলাদেশকে বড় টার্গেট দিতে হলে স্বাগতিক স্পিনারদের নিয়ে ভাবতে হবে। এ বিষয়ে হারমার বলেন, ‘হ্যাঁ অবশ্যই উপমহাদেশে তৃতীয় দিনে স্পিনাররাই খেলায় এগিয়ে আসে। এটা দেখে ভাল লাগছে যে স্পিনারদের জন্য এত সুন্দর হয়ে গেছে উইকেট। আমি আজ রাউন্ড দ্য উইকেট বোলিং করেছি এবং বল এখনও ঘুরছে। আমি মনে করি লক্ষ্য নিয়ে কিংবা ফলাফলের বিষয়টি নিয়ে এই মুহূর্তে কোনকিছু বলতে পারি না। কারণ এখনও এ ম্যাচে অনেক ক্রিকেটীয় লড়াই বাকি আছে। আমাদের মনোযোগ আগামীকাল (আজ) সকালের দিকে। আমি মনে করি প্রথম সেশনই আমাদের মূল লক্ষ্য হতে যাচ্ছে এবং সেটার বাইরে খুব বেশি কিছু নয়।’ তবে আলোর স্বল্পতা এবং বৃষ্টির কারণে চলতি টেস্টের অনেক ওভার নষ্ট হয়েছে বলে একটা আফসোস ঝরলো তার কণ্ঠে। তিনি বলেন, ‘আমরা কম আলো এবং এ জাতীয় কারণে অনেক সময় নষ্ট করেছি। আমরা প্রচুর বৃষ্টির মধ্যে দিয়ে খেলছি। আমি নিশ্চিত এখন উইকেটে প্রচুর আর্দ্রতা রয়েছে। আমি মনে করি বৃষ্টি এবং তাপ ছাড়া আমরা হয় তো অন্যরকম ঘটনাই দেখতে পেতাম। কিন্তু আমি মনে করি না উইকেটের চিড় ধরাটা কোন ফ্যাক্টর হবে। আমার মনে হয় এরচেয়ে পদচিহ্নের জায়গাটাই প্রভাবক হতে পারে।’ বাংলাদেশ দল অনেক ভাল ব্যাটিং করেছে। এবার একইভাবে দারুণ কিছু করার লড়াই প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানদের। এ বিষয়ে হারমার বলেন, ‘তাদের কয়েক খেলোয়াড় দারুণ ব্যাটিং করেছে। তারা আমাদের তেমন কোন সুযোগ দেয়নি। তবে আমার মনে হয় তাদের আমরা যে রানে অলআউট করে দিয়েছি সেটা অনেক সম্মানজনক সংগ্রহ।’