১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দায়ীদের শাস্তির বিধান রেখে আইন করা হবে ॥ ও. কাদের

  • সড়ক দুর্ঘটনায়

নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ২৪ জুলাই ॥ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনায় দায়ী সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির বিধান রেখে ১৯৮৩ সালের মোটরযান অধ্যাদেশ পরিবর্তন করে আইনে পরিণত করা হবে। এই বছর তা সংসদে পাস করা হবে। তিনি বলেন, বর্তমানে প্রচলিত আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে অপরাধীরা বেরিয়ে যায়। প্রকৃত অপরাধীদের বিচার হয় না। তিনি বলেন, দুর্ঘটনার পরে যেসব তদন্ত কমিটি গঠন করা হয় তার বাস্তব উপযোগিতা আছে বলে মনে হয় না। এই তদন্ত কমিটিটা করতে হয় দায়সারা গোছের। এতে কোন কাজ হচ্ছে না।

শুক্রবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল মোড়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ৮ লেন কাজ পরিদর্শনে এসে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে সড়ক ও জনপথ বিভাগের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, এবারের ঈদযাত্রা ভালো হলেও ঈদের পরে সড়কের অবস্থা ভাল থাকলেও যে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে একে সড়ক দুর্ঘটনা বলব না, রোড ক্রাশ বলব। বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম প্রান্তে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানির ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, কক্সবাজার থেকে সৈয়দপুর পর্যন্ত একজন চালকের পক্ষে গাড়ি চালাতে গেলে এই ধরনের ঘটনাকে আমি স্বাভাবিক বলব। কারণ, চালক তখন ঘুমে ঢুলুঢুলু অবস্থায়, এই অবস্থায় দূরপাল্লায় একজন চালক রাখা হয়, সেও তো একজন মানুষ, সেও তো ক্লান্ত ও পরিশ্রান্ত হবে এবং সেটাই হয়েছে। বেপরোয়া গাড়ি চালাচ্ছিল। এ পর্যন্ত সড়কের কারণে কোথাও কোন দুর্ঘটনা ঘটেনি।

ঝুঁকিপূর্ণ বাঁক প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, সড়ক-মহাসড়কে ১৪৪টি দুর্ঘটনাপ্রবণ বাঁককে চিহ্নিত করে সে জন্য ১৬৫ কোটি টাকার প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে, যার ৫০ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বাকিগুলোর দরপত্র সম্পন্ন হয়েছে। এতে হতাশ হওয়ার কোন কারণ নেই। তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনার জন্য দায়ী অটোরিক্সা ও নসিমন। এগুলোর বিরুদ্ধে আগামী ১ আগস্ট থেকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।