১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুকুরে ডুবে মেডিক্যাল ছাত্রীসহ দুই বোনের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, কুষ্টিয়া, ২৪ জুলাই ॥ কুষ্টিয়ায় পানিতে ডুবে মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রীসহ ২ বোনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে কুমারখালী উপজেলার বাড়ির পাশের একটি পুকুরে গোসল করতে নেমে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, মহিষাখোলা গ্রামের ব্যাংক কর্মকর্তা আমজাদ হোসেনের মেয়ে খুলনা মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রী ফেরদৌস আরা ঝুমা (২৩) ও তার বোন নুরে জান্নাত জুঁই (১৬)। স্বজনদের অভিযোগ, খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তার না থাকায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এলাকাবাসীর তোপের মুখে পড়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, কুমারখালীর বাড়ির পাশের একটি পুকুরে গোসল করতে নেমে তারা গভীর পানিতে ডুবে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নিকটবর্তী খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ সময় সেখানে কোন ডাক্তার না থাকায় নিহতের স্বজনরা বাইরে থেকে একজন গ্রাম্য ডাক্তার ডেকে নিয়ে আসেন। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার এসে তাদের মৃত ঘোষণা করেন। ফেরদৌস আরা ঝুমা খুলনা মেডিক্যাল কলেজের ৩য় বর্ষের ছাত্রী ও জুঁই নবম শ্রেণীর ছাত্রী। এদিকে ঝুমা ও জুঁইয়ের মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী হাসপাতাল ঘিরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। খবর পেয়ে খোকসা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেবেকা খান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ কামরুজ্জামান সোহেল জানান, দুপুরে যে ডাক্তারের ডিউটি ছিল সে পরীক্ষা দিতে যাওয়ার কারণে ওই সময় হাসপাতালে কোন ডাক্তার ছিল না। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন খোকসা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেবেকা খান।