২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন রেলমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার ফের অবনতি

  • কুমিল্লায় কোরানখানি, মিলাদ

নিজস্ব সংবাদদাতা, কুমিল্লা, ২৪ জুলাই ॥ সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এমপির শারীরিক অবস্থার ফের অবনতি ঘটেছে। তাঁকে ওই হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়েছে বলে জানা গেছে। মন্ত্রীর সঙ্গে সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত পরিবারের সদস্য ও চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রীর ভাতিজা এ্যাডভোকেট আবুল খায়ের। এদিকে রেলমন্ত্রীর আরোগ্য কামনা করে মন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকা কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামসহ জেলার বিভিন্নস্থানে মসজিদে কোরানখানি, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানা গেছে, গত ১৬ জুলাই নগরীর ঠাকুরপাড়ার নিজ বাসভবনে ইফতারের পর কান্দিরপাড় জামে মসজিদে তারাবির নামাজ পড়তে গিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তাৎক্ষণিকভাবে তাঁকে প্রথমে কুমিল্লার বাসভবন এবং পরে রাত ১১টা ৫ মিনিটে নগরীর মুন হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর গভীর রাতে তাঁকে এ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) নিয়ে ভর্তি করা হয়। ওই হাসপাতালের ডাক্তারের পরামর্শে ঈদের দিন শনিবার ভোরে এয়ার এ্যাম্বুলেন্সযোগে মন্ত্রীকে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মন্ত্রীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটে। কিন্তু শুক্রবার আবারও শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাঁকে শুক্রবার ভোরে ওই হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসাধীন মন্ত্রীর সঙ্গে রয়েছেন তাঁর (মন্ত্রীর) স্ত্রী হনুফা আক্তার রিক্তা, মন্ত্রীর একান্ত সচিব কিবরিয়া মজুমদার ও ব্যক্তিগত চিকিৎসক মোঃ রেজাউল করিম।

এদিকে রেলমন্ত্রীর আশু রোগ মুক্তি কামনা করে কুমিল্লা ও তাঁর নির্বাচনী এলাকা চৌদ্দগ্রামের বিভিন্ন মসজিদে কোরানখানি, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার মন্ত্রীর গ্রামের বাড়ি চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে স্থানীয় স্কুল মাঠে মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে মোনাজাত পরিচালনা করেন মৌকারা দরবার শরীফের পীর সাহেব মাওলানা নেছারউদ্দিন ওয়ালিউল্লাহ। এছাড়া চৌদ্দগ্রাম কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, কাশিনগর সিনিয়র মাদ্রাসা মিলনায়তন, আলকরা ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুরসহ উপজেলার বিভিন্নস্থানে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে মন্ত্রীর শারীরিক সুস্থতা কামনা করে কুমিল্লা মহানগরীর বিভিন্ন মসজিদে জুমার নামাজ শেষে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এর মধ্যে কান্দিরপাড় জামে মসজিদে মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্রশাসক আলহাজ মোঃ ওমর ফারুক, নগরীর ঠাকুরপাড়া চাঁনখা জামে মসজিদে কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যক্ষ আফজল খানসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের জনগণ। মন্ত্রীর বড় ভাই আব্দুল মতিন, ভাতিজা এ্যাডভোকেট আবুল খায়েরসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্য রেলমন্ত্রীর সুস্থতা কামনা করে কুমিল্লার সর্বস্তরের জনগণসহ দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।