২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাংলাদেশের প্রশংসায় জাভেদ মিয়াদাদ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্রিকেটে দারুণ সময় কাটছে বাংলাদেশের। বিশ্বকাপের পর চলতি বছরের এপ্রিল থেকে পাকিস্তান, ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলকে হারিয়ে ক্রিকেট বিশ্বকেই চমকে দিয়েছে সাকিব-মাশরাফিরা। তার বিনিময়ে র‌্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি ঘটেছে টাইগারদের। বর্তমানে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের সাত নাম্বারের দল বাংলাদেশ। আর এই সময় বাংলাদেশের পারফর্মেন্সের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক জাভেদ মিয়াদাদ। বুধবার চতুর্থ একদিনের ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে পাকিস্তান। আর তখনই মিয়াদাদের কণ্ঠে উঠে আসে বাংলাদেশের নামটি। তার মতে, ক্রিকেটে এখন অনেক পরিবর্তন হচ্ছে, শক্তিশালী দেশের আবির্ভাব ঘটছে। তাই শক্তিশালী দলের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা ঢেলে দিতে হলে পাকিস্তানের উচিত পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখা। তিনি বলেন, ‘পাকিস্তান, ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দেশকে হারিয়ে বাংলাদেশ তাদের উত্তানটাকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। তাই এটা সুস্পষ্টভাবেই দেখা যাচ্ছে যে ক্রিকেটে এখন পরিবর্তন হচ্ছে। যে কারণে ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় ঠিকে থাকতে হলে পারফর্মেন্সের ধারাবাহিকতাটা জরুরী। যেটা আমাদের নেই।’ এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমাদের দলের অবস্থা খুবই ভাল। কিন্তু ধারাবাহিকতা ধরে রাখা প্রয়োজন। আমাদের আরও ভাল করতে হবে যেন অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ভারতের মতো দলগুলোর বিপক্ষে আমরা লড়াই করতে পারি।’ গত এপ্রিলে নিজেদের মাঠিতে বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করেছিল পাকিস্তানকে। এরপরই পাকিস্তানী কিংবদন্তি ক্রিকেটার জাভেদ মিয়াদাদ বাংলাদেশের প্রশংসায় মেতেছিলেন। তখন তিনি বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশ আর আগের মতো নেই। আমি মনে করি তারা এখন যে কোন দলকেই হতাশ করতে পারে। কারণ তারা উন্নতি করছে এবং প্রতিদিনই উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।’ ২০০২ সালে বাংলাদেশ দলে কিছুদিন কোচিংয়ের দায়িত্ব পালন করেছিলেন মিয়াদাদ। ওই স্মৃতি রোমন্থন করে তখন তিনি আরও বলেছিলেন, ‘আমি কিছুদিন বাংলাদেশে কোচিং করিয়েছিলাম এবং তাদের কিছু মৌলিক বিষয় সম্পর্কে বলে ছিলাম। যেমন তারা শট ডেলিভারিতে দুর্বল ছিল। মৌলিক বিষয়গুলো তারা যেভাবে মেনে চলেছে তাতে প্রশংসা করতে হয়। এখন তাদের খেলা দিন দিনই উন্নতি করছে।’